বারঘরিয়া ইউপি চেয়ারম্যানসহ ২’শ জামায়াত-বিএনপির নেতা-কর্মীর আওয়ামী লীগে যোগদান

104

dsc01073-customচাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলার বারঘরিয়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আবুল খায়ের, সদস্য সেমাজুল ইসলাম হারেজ ও জিয়াউর রহমান জিয়াসহ ২’শ জামায়াত-বিএনপির নেতা-কর্মী আওয়ামী লীগে যোগদান করেছেন। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের আদর্শে এবং স্থানীয় সংসদ সদস্য আব্দুল ওদুদের নেতৃত্বের প্রতি অনুপ্রাণিত হয়ে তারা যোগদান করেন। এ উপলক্ষে গতকাল রবিবার বিকেলে বারঘরিয়া দৃষ্টিনন্দন পার্কে এক জনসমাবেশের আয়োজন করে বারঘরিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ। ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান হানুরণ অর রশিদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন আব্দুল ওদুদ এমপি। এ সময় তিনি বলেন-গত ৮ বছর থেকে আমি আবুল খায়ের সাহেবকে বোঝাবার চেষ্টা করেছি, জামায়াত করে কোন লাভ নেই, জামায়াত কোন দিন রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় যেতে পারবে না, জামায়াত স্বাধীনতা বিরোধী দল, অপর দিকে আওয়ামী লীগ মুক্তিযুদ্ধে নেতৃত্ব দানকারী দল, এ দলের আদর্শ আছে, জাতির জনকের নেতৃতত্বে এদেশ স্বাধীন হয়েছে, অতএব আওয়ামী লীগের পতাকাতলে আসুন একসাথে কাজ করি। দেরিতে হলেও তিনি তার রাজনীতির ভুল বুঝেছেন এবং আজ তিনি আওয়ামী লীগে যোগদান করলেন। তাকেসহ যোগদানকারী সকলকে আওয়ামী লীগে স্বাগত জানাই এবং যারা এখনও বাইরে আছেন তাদেরকেও আওয়ামী লীগে যোগদান রকার জন আহবান জানাই। এ সময় তিনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশে এবং চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদরসহ জেলার উন্নয়নের চিত্র তুলে ধরে বলেন-সোনামসজিদ পর্য়ন্ত রেললাইন হবে, সড়ক পথ ৪ লেন করা হবে, মহানন্দা নদীতে রাবার ড্যাম নির্মাণ হবে, নদী খনন করে বারমাস পানি ধরে রাখা হবে। তিনি বলেন- বিশ্বে বাংলাদেশ এখন একটি রোল মডেল দেশ হিসাবে স্বীকৃতি পেয়েছে। এসব প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অবদান।
সমাবেশে অন্যান্যেম মধ্যে বক্তব্য রাখেন, জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি আবু নজর হোসেন খান বৃটিশ, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট নজরুল ইসলাম, সদর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মাওলানা সোহরাব আলী, মসিদুল হক মাসুদ, জেলা পরিষদ নির্বাচনে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত সদস্য আবুল বাশার, সাবেক কমিশনার মিজানুর রহমান, আব্দুর রউফ জুলমাত এবং জামায়াত থেকে আওয়ামী লীগে যোগ দেওয়া বারঘরিয়া ইউপি চেয়ারম্যান আবুল খায়ের, সেমাজুল ইসলাম ও জিয়াউর রহমান।
সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ইকবাল মাহমুদ খান খান্না, যুগ্ন সম্পাদক আলমগীর কবির, কোষাধ্যক্ষ ও মহারাজপুর ইউপি চেয়ারম্যান এজাবুল হক বুলি, জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক শহীদুল হুদা অলকসহ বিভিন্নস্তরের নেতৃবৃন্দ।