বছরের শুরুতে মাঠে নামছেন মেসি-নেইমাররা

61

05-

দুর্দান্ত এক রেকর্ডের মধ্য দিয়ে বার্সেলোনা কাটিয়েছে সদ্য সমাপ্ত ২০১৫ সাল। এক ক্যালেন্ডার বর্ষে সর্বোচ্চ ১৮০ গোলের রেকর্ড করেছে কাতালানরা। বার্সার স্ট্রাইকার ত্রয়ী লিওনেল মেসি, লুইস সুয়ারেজ ও নেইমার জুনিয়র সম্মিলিতভাবে ইউরোপের ক্লাবগুলোর মধ্যে সেরা আক্রমণভাগে পরিণত হয়েছে। গত বছর এক মৌসুমে পাঁচ শিরোপা জিতেছে দলটি।
এবারও কম যাননি মেসি-নেইমাররা। লা লিগায় শীর্ষস্থান, উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের নকআউটপর্ব নিশ্চিত, কোপা দেল রে’র শেষ ষোলো’তে জায়গা করে নিয়েছে বার্সা। তাই নতুন বছরেও অনেক শিরোপার হাতছানি রয়েছে দলটির সামনে। মৌসুমের প্রথম ভাগটা ভালোই কেটেছে। এবার ২০১৬ সালে মৌসুমের বাকিটা সময়ে কতদূর যেতে পারবে কাতালানরা তাই এখন দেখার বিষয়।
সেই মিশন শুরু করতে শনিবারই প্রথম ম্যাচে মাঠে নামছে বার্সা। রাত ৯টায় এস্পানিয়লের আতিথেয়তা গ্রহণ করবে তারা। এই ম্যাচে জয় পেলেই অ্যাতলেটিকো মাদ্রিদের সঙ্গে পয়েন্ট ব্যবধান তিন হবে। আপাতত দুদলেরই পয়েন্ট ৩৮ করে। তবে অ্যাটলেটিকো ১৭ ম্যাচ খেললেও বার্সা খেলেছে ১৬ ম্যাচ।
স্প্যানিশ লিগে এদিন মাঠে নামছে অ্যাতলেটিকো মাদ্রিদও। ঘরের মাঠে তাদের প্রতিপক্ষ লেভান্তে। এছাড়া একইদিনে মাঠে নামবে মালাগা এফসি। এই ম্যাচে তাদের প্রতিপক্ষ সেল্টা ডি ভিগো। আরেক স্প্যানিশ জায়ান্ট রিয়াল মাদ্রিদের ম্যাচ রয়েছে রোববার রাত দেড়টায়। প্রতিপক্ষ ভ্যালেন্সিয়া সিএফ। শিরোপার লড়াইয়ে টিকে থাকতে জয় দিয়ে বছর শুরু করাটা রিয়ালের জন্যও গুরুত্বপূর্ণ।