ফ্রান্সে এসি চালিয়ে দরজা খোলা রাখলে জরিমানা!

8

ফ্রান্সের শীততাপ নিয়ন্ত্রিত দোকানের দরজা বন্ধ রাখার ব্যাপারে নির্দেশনা জারি করতে যাচ্ছে সেদেশের সরকার। বিদ্যুতের ব্যবহার কমাতে এমন সিদ্ধান্ত নিচ্ছে দেশটি। এ ছাড়া বিদ্যুৎ ব্যবহৃত বিজ্ঞাপন ও নিয়ন বাতির ব্যবহার নিয়ন্ত্রণেও আসছে নির্দেশনা। ফ্রান্সের পরিবেশগত পরিবর্তন বিষয়ক মন্ত্রী অ্যাগনেস প্যানিয়ার-রানাচার আরএমসি রেডিওকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে এ তথ্য জানান। বিবিসির খবরে বলা হয়, জার্নাল দ্যু দিমানখে নামক পত্রিকায় মন্ত্রী অ্যাগনেস প্যানিয়ের রুনাখের বলেছেন, এসি চালু থাকা অবস্থায় দরজা খোলা রাখলে ২০ শতাংশ বেশি বিদ্যুৎ খরচ হয় এবং এটা অযৌক্তিক। কোনো দোকান এসি চালানর ব্যাপারে সরকারি নির্দেশনা অমান্য করলে ৭৫০ ইউরো জরিমানা করা হবে। তিনি জানিয়েছেন, জ¦ালানি সাশ্রয়ের স্বার্থে শিগগিরই অন্তত দুটি নির্দেশনা জারি করতে যাচ্ছে তার মন্ত্রণালয়। মন্ত্রী অ্যাগনেস প্যানিয়ের বলেন, প্রথম নির্দেশনাটি হবে বিদ্যুৎ ব্যবহৃত আলোকিত বিজ্ঞাপন বোর্ডের উপর নিষেধাজ্ঞা সম্পর্কিত। শহরের আকার যাই হোক না কেন, রাত ১টা থেকে সকাল ৬টা পর্যন্ত বিদ্যুৎ ব্যবহৃত বিজ্ঞাপনগুলো বন্ধ রাখতে হবে। তিনি জানান, দ্বিতীয় নির্দেশনাটি হবে শীততাপ নিয়ন্ত্রিত যন্ত্র সম্পর্কিত। দোকানের তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণের জন্য এসি চালানর সময় দরজা খোলা রাখা যাবে না। মন্ত্রী জানিয়েছেন, ৮ লাখের কম জনসংখ্যার শহরগুলোতে ইতোমধ্যে নিয়ন বাতির উপর নিষেধাজ্ঞা কার্যকর করেছে সরকার। তবে বিমান ও রেল স্টেশন এ নিষেধাজ্ঞার আওতাভুক্ত।