ফের শীর্ষে রিয়াল

17

যেন নতুন শুরু করল রিয়াল মাদ্রিদ। অভিজ্ঞ খেলোয়াড়দের বিশ্রামের দিনে দ্যুতি ছড়ালেন ভিনিসিউস জুনিয়র ও রদ্রিগো। দুই তরুণ ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ডের গোলে ওসাসুনাকে হারিয়ে লা লিগার শীর্ষে উঠে গেল জিনেদিন জিদানের দল।
সান্তিয়াগো বের্নাবেউয়ে ২-০ গোলে জিতেছে রিয়াল। প্রথমার্ধে দলকে এগিয়ে নেন ভিনিসিউস। দ্বিতীয়ার্ধে তার জায়গাতেই বদলি নেমে ৭৩তম মিনিটে ব্যবধান বাড়ান রদ্রিগো।
আগের ম্যাচে সেভিয়াকে হারানো দলটি থেকে আটটি পরিবর্তন আনেন জিনেদিন জিদান। নিয়মিত খেলোয়াড়দের অনেকেই ছিলেন না শুরুর একাদশে। করিম বেনজেমা, গ্যারেথ বেল, হামেস রদ্রিগেস, এদেন আজার, থিবো কর্তোয়া ছিলেন বেঞ্চে। স্কোয়াডেই ছিলেন না গ্যারেথ বেল।
আক্রমণভাগের গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড়দের অনুপস্থিতির প্রভাব পড়ে খেলায়। আক্রমণে ছিল না অতোটা ধার। মাঝে মধ্যেই পাল্টা আক্রমণে রিয়ালের রক্ষণে হানা দেয় ওসাসুনা। আক্রমণ-প্রতি আক্রমণে জমে ওঠে ম্যাচ।
অষ্টাদশ মিনিটে প্রায় এগিয়েই যাচ্ছিল রিয়াল। আলভারো ওদ্রিওসোলার ক্রস বিপদমুক্ত করতে গিয়ে উল্টো নিজেদের জালে পাঠিয়ে দিচ্ছিলেন রাউল নাভাস। গোলরক্ষকের গায়ে লাগার পর বল পেয়ে যান লুকা ইয়োভিচ। বারের ওপর দিয়ে মেরে সুযোগ নষ্ট করেন এই ফরোয়ার্ড।
৩৬তম মিনিটে দলকে এগিয়ে নেন ভিনিসিউস জুনিয়র। টনি ক্রুসের কাছ থেকে বল পেয়ে ডি-বক্সের বাইরে থেকে বুলেট গতির শট নেন ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড। নাভাসের পায়ে লেগে বল জড়ায় জালে। চোখে জল নিয়ে মৌসুমে নিজের প্রথম গোল উদযাপন করেন ভিনিসিউস।
দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই ব্যবধান বাড়ানোর সুযোগ আসে ইয়োভিচের সামনে; কিন্তু ওপর দিয়ে মেরে আবার সুযোগ হাতছাড়া করেন। ৫৭তম মিনিটে বল জালে পাঠিয়েছিলেন তিনি, এ যাত্রায় ভিএআরের সাহায্য নিয়ে অফ সাইডের জন্য গোল দেননি রেফারি।
৭১তম মিনিটে ভিনিসিউসের জায়গায় বদলি নেমে ৯৩ সেকেন্ডের মধ্যে জালে বল পাঠিয়ে রিয়ালের হয়ে নিজের অভিষেক রাঙান রদ্রিগো। ডি-বক্সের বাইরে বল পেয়ে পায়ের কারিকুরিতে ডিফেন্ডারকে এড়িয়ে ভেতরে ঢুকে পড়েন ব্রাজিলের তরুণ এই ফরোয়ার্ড। দুই খেলোয়াড়ের মধ্যে দিয়ে কোনাকুনি শটে খুঁজে নেন জাল।
টানা তৃতীয় জয়ে ৬ ম্যাচে ১৪ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে উঠে এসেছে রিয়াল। আসরে প্রথম হারের তেতো স্বাদ পাওয়া ওসাসুনার পয়েন্ট ৭।
দিনের অন্য ম্যাচে মায়োর্কাকে ২-০ গোলে হারিয়ে ১৩ পয়েন্ট তালিকার দুই নম্বরে আছে আতলেতিকো মাদ্রিদ। লেগানেসের বিপক্ষে ১-১ গোলে ড্র করে ১২ পয়েন্ট নিয়ে তিন নম্বরে আছে আথলেতিক বিলবাও।
১১ পয়েন্ট নিয়ে চার নম্বরে রয়েছে গ্রানাদা। ১০ পয়েন্ট নিয়ে পাঁচ নম্বরে আছে শিরোপাধারী বার্সেলোনা।