ফের প্রশংসিত চঞ্চল-শাওন

16

দুজনেই অভিনয় ও গানের মানুষ। বলছি, চঞ্চল চৌধুরী ও মেহের আফরোজ শাওনের কথা। গত বছর তারা দ্বৈতভাবে কণ্ঠে তুলেছিলেন ‘সর্বত মঙ্গল রাধে’ গানটি। মুক্তির পর গানটি যেমন শ্রোতাপ্রিয়তা লাভ করে, তেমনি কপিরাইট ইস্যুতে তৈরি হয়েছিল জটিলতা। এ নিয়ে জলঘোলা কম হয়নি। ঈদুল আজহা উপলক্ষে আবারো একসঙ্গে গেয়েছেন চঞ্চল-শাওন। ‘নিশা লাগিলোরে’ গানে কণ্ঠ দিয়েছেন তারা। হাছন রাজার কালজয়ী এ গানের সংগীতায়োজন করেছেন দেশের অন্যতম জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী পার্থ বড়ুয়া।

গত ১৯ জুলাই ইউটিউবে মুক্তি পায় গানটি। আগের গানের মতো এ গানটিও দারুণ সাড়া ফেলেছে দর্শক-শ্রোতা মহলে। ৬ দিন না পেরুতেই গানটির ভিউ দাঁড়িয়েছে প্রায় ২০ লাখ। শ্রোতারাও মন্তব্য করে গানটি নিয়ে ভূয়সী প্রশংসা করছেন। আল আমিন লিখেছেন, ‘শাওন সবসময়-ই প্রিয় অভিনেত্রী। চঞ্চলদার কথা আর কী বলবো। সর্বত মঙ্গল রাধে তাদের অতুলনীয় সৃষ্টি।’ আরেকজন লিখেছেন, ‘আপনাদের গানের অনুষ্ঠানটা অনেক সুন্দর হয়, তা বলার মতো নয়। তার মধ্যে চঞ্চল চৌধুরী শাওন তুলনাই হয় না অনেক মজা পাইলাম।’

এই গানের অনুষ্ঠানের প্রশংসা করে আরেকজন লিখেন, ‘সত্যি আপনাদের মতো গুণী শিল্পীদের হাত ধরেই এগিয়ে যাবে বাংলা গানের সমাজ। হ্যাঁ, যেসব বাংলা গান এই আধুনিক সমাজে প্রায় বিলুপ্তির পথে সে গানসমূহ আবার উঠে দাঁড়াবে আপনাদের হাত ধরেই।’ চঞ্চল-শাওনের গাওয়া এ গানের সুবাস ছড়িয়েছে কলকাতায়ও। সেখান থেকে একজন লিখেছেনÑ‘হাছন রাজা এবং পিয়ারীকে চোখের সামনে দেখতে পেলাম। চঞ্চলদা, শাওনদি ভালোবাসা রইল তোমাদের জন্য।’

কলকাতা থেকে আরেকজন লিখেছেন, ‘আমি ভারত থেকে দেখছি। বাংলাদেশের এই ধরনের গান অসাধারণ। সব্বাইকে ধন্যবাদ।’ কলকাতার প্রসূন দে লিখেছেন, ‘গতবারের সর্বত মঙ্গল রাধে গানটির পর আরেকটি অসাধারণ পরিবেশন। বাংলার প্রচলিত পল্লীগীতি নিয়ে এরকম আরো গান হোক। সকলের জন্য শুভ কামনা রইল।’ আইপিডিসি আয়োজিত সংগীতের আসর ‘আমাদের গান’-এর দ্বিতীয় সিজনের জন্য তৈরি করা হয় এই গান। প্রতিষ্ঠানটির ইউটিউব ও ফেসবুক পেজে মুক্তি পেয়েছে গানটি।