ফুটবল বিশ্বকাপ উপলক্ষে স্মারক ডাকটিকিট

2

ফুটবল বিশ্বকাপের রোমাঞ্চকর মুহূর্ত স্মরণীয় করে রাখতে ডাক অধিদপ্তর দশ টাকা মূল্যমানের একটি স্মারক ডাকটিকিট প্রকাশ করেছে। ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার মঙ্গলবার বাংলাদেশ সচিবালয়ে ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের সম্মেলন কক্ষে এ স্মারক ডাকটিকিট অবমুক্ত করেন।
মঙ্গলবার ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ সংবাদ জানানো হয়েছে।
এতে বলা হয়, কাতারে শুরু হয়েছে ফুটবলের সবচেয়ে বড় উৎসব ২২তম ফিফা ফুটবল বিশ্বকাপ। ফুটবল বিশ্বকাপের এই রোমাঞ্চকর মুহূর্ত স্মরণীয় করে রাখতে ডাক অধিদপ্তরের পক্ষ থেকে দশ টাকা মূল্যমানের একটি স্মারক ডাকটিকিট, ত্রিশ টাকা মূল্যমানের একটি স্যুভেনির শিট, দশ টাকা মূল্যমানের একটি উদ্বোধনী খাম অবমুক্ত ও পাঁচ টাকা মূল্যমানের একটি ডাটাকার্ড এবং একটি বিশেষ সিলমোহর প্রকাশ করা হয়েছে।
ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী স্মারক ডাকটিকিট ছাড়াও স্যুভেনির শিট ও উদ্বোধনী খাম অবমুক্ত করেন এবং ডাটাকার্ড ও বিশেষ সিলমোহর প্রকাশ করেন।
ডাক ও টেলিযোগাযোগ সচিব মো. খলিলুর রহমান এবং ডাক অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মো. হারুন উর রশীদ এ সময় উপস্থিত ছিলেন।
এ সময় মোস্তাফা জব্বার ফুটবলকে বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় খেলা হিসেবে আখ্যায়িত করে বলেন, প্রথমদিকে শুধু শখের বসেই এই খেলাটি খেলা হতো, যা আন্তর্জাতিক রূপ ধারণ করে ১৮৭২ সালে। তিনি বলেন, গ্লাসগোতে স্কটল্যান্ড ও ইংল্যান্ডের মধ্যকার ম্যাচটিই ছিল প্রথম আন্তর্জাতিক ম্যাচ। একটা সময় ফুটবলের গ-ি ছিল শুধুই অলিম্পিকভিত্তিক। পরবর্তীতে এর জনপ্রিয়তা দিন দিন বাড়তে থাকায় ফুটবল সংস্থা অলিম্পিকের বাইরেও একটি টুর্নামেন্ট আয়োজনের কথা চিন্তা করে। সেই লক্ষে ১৯০৬ সালে সুইজারল্যান্ডে আয়োজন করা হয় একটি প্রতিযোগিতার। তার দুই বছর পরই ১৯০৮ সালে লন্ডনে, গ্রীষ্মকালীন অলিম্পিকে ফুটবল প্রতিযোগিতা আনুষ্ঠানিকভাবে যাত্রা শুরু করে।
মন্ত্রী জানান, কাতারই মধ্যপ্রাচ্যের প্রথম কোনো দেশ, যারা আয়োজন করছে ফিফা ফুটবল বিশ্বকাপ। তিনি ২২তম ফিফা বিশ্বকাপের সফলতা কামনা করেন।