“ফুটবল ইতিহাসের অংশ আমি”

51

08ব্যালন ডি’অর জেতার পর ফিফার বর্ষসেরা ফুটবলারও নির্বাচিত হলেন ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো। গত বছর দলীয় ও ব্যক্তিগত সাফল্যে উজ্জ্বল থাকা রিয়াল মাদ্রিদের এই ফরোয়ার্ড এখন নিজেকে ইতিহাসের অন্যতম সেরা ফুটবলার মনে করছেন।
চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী লিওনেল মেসিকে পেছনে ফেলে গত সোমবার ফিফার ২০১৬ সালের বর্ষসেরার মুকুট জয় করেন রোনালদো। পরে ফিফার ওয়েবসাইটকে দেওয়া প্রতিক্রিয়ায় লক্ষ্য পূরণের তৃপ্তির কথা জানান তিনি।
“আমার কোনো সন্দেহ নেই যে, আমি এরই মধ্যে ফুটবল ইতিহাসের অংশ হয়ে গেছি। যখন থেকে খেলা শুরু করেছি, তখন থেকে সবসময় আমার মূল লক্ষ্য ছিল এটা হওয়া। শুধু খেলোয়াড় নয়, তারকা হয়ে ওঠা এবং সেরা হওয়ার জন্য প্রতিনিয়ত সংগ্রাম করে যাওয়া।”
“এবং আমি সেটা করেছি। শিরোপা ও ব্যক্তিগত পুরস্কার এবং রেকর্ডগুলোও সে কথা বলছে। এটা দারুণ গর্বের উৎস এবং এ পর্যন্ত যেভাবে কাজ করেছি, সেভাবে তা চালিয়ে যাওয়ার জন্য এ পুরস্কার আমাকে অনুপ্রাণিত করবে।” ২০১৬ সালে পর্তুগালের হয়ে ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপের শিরোপা জিতেন রোনালদো। রিয়াল মাদ্রিদের জার্সিতে জয় করেন চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ও ফিফা ক্লাব ওয়ার্ল্ড কাপ। তারকা এই ফরোয়ার্ডও ২০১৬ সালকে এক কথায় নিজের সেরা মানছেন। “কয়েকবার আমি বলেছি, সম্ভবত এটাই আমার ক্যারিয়ারের সেরা বছর। জাতীয় দলের হয়ে শিরোপা জেতা অবশ্যই একটা বড় ভূমিকা রেখেছে। কেননা, এটা ছিল পর্তুগালের প্রথম শিরোপা জয়। এটা ২০১৬ সালকে বিশেষ করে তুলেছে।” “এটা ছিল দুর্দান্ত একটি বছর; সত্যিই বিশেষ একটা বছর। আমার কোনো সন্দেহ নেই, ফুটবল খেলা শুরুর পর এটাই আমার সেরা বছর।” সতীর্থদের প্রশংসা করতেও ভোলেননি রোনালদো, “আপনার দল ছাড়া আপনি বিশ্বসেরা খেলোয়াড়ের ট্রফিটা উঁচিয়ে ধরতে পারবেন না।”