ফিলিস্তিনিরা রাশিয়াকে সমর্থন করছে

4

ইউক্রেনে রুশ অভিযানের ব্যাপারে ফিলিস্তিনের নেতারা নীরব থাকলেও গাজা উপত্যকার বাসিন্দার রাশিয়ার প্রতি সমর্থন জানিয়েছেন। তারা মনে করছেন মস্কো তাদের নিজের ভূমির মুক্তির জন্য এবং ‘সঠিক কারণে’ যুদ্ধ করছে। এ ছাড়া পক্ষপাতমূলক আচরণ এবং ফিলিস্তিনিদের অবহেলা করায় পশ্চিমাদের প্রতি ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন তারা। গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে রুশ সামরিক অভিযান শুরু হয়। অতীতে সব সময় মস্কোর পাশে থাকলেও এই সংঘাত নিয়ে ফিলিস্তিনি নেতারা কোনো ধরনের মন্তব্য করা থেকে বিরত রয়েছেন। খবর স্পুটনিকের। এদিকে রাশিয়াকে সমর্থন করলে যুক্তরাষ্ট্রের ক্ষোভের মুখে পড়তে হতে পারে এমন একটা শঙ্কা রয়েছে। এ ছাড়া এমন শঙ্কাও রয়েছে যে ফিলিস্তিন যদি রাশিয়াকে সমর্থন করে তবে তাদের কূটনৈতিক সমর্থন এবং আর্থিক অনুদান বন্ধ হয়ে যেতে পারে। গাজা উপত্যকার অনেক সাধারণ ফিলিস্তিনির জন্য রাশিয়াকে সমর্থন করার বিষয়টি অনেকটা ‘স্বাভাবিক’ বিষয় এবং তারা তাদের মতামত প্রকাশে ভয় পায় না। যেমন ৪০ বছর বয়সী সেলিম শুরাব স্পুটনিককে বলেছেন, তিনি রাশিয়াকে সমর্থন করেন কারণ দেশটি ‘সঠিক কারণে’ লড়াই করছে। বিশেষ করে তারা নিজের ভূমিকে উগ্রপন্থি শক্তি থেকে মুক্ত করতে লড়াই করছে। এ ছাড়া অন্য আরও অনেকে আছেন যারা অন্য কারণে মস্কোর প্রতি সমর্থন ব্যক্ত করেছেন। আংহাম ঈদ নামে আরেক গাজাবাসী বলেন, রাশিয়ার প্রতি আমি আমার পূর্ণ সমর্থন ব্যক্ত করেছি। আংহাম গত মে মাসে ইসরায়েলের ‘গার্ডিয়ান অব দ্য ওয়ালস’ অভিযানের সময় আহত হন এবং ওই নৃশংসতায় বাবা ও ভাইকে হারান।