প্লাস্টিক বর্জ্যরে পুনঃব্যবহার করে সৌন্দর্যবর্ধন

38

‘প্লাস্টিক বর্জ্যরে পুনঃব্যবহার করে প্রকৃতির সৌন্দর্য বৃদ্ধি করি’- স্লোগানে গতকাল রবিবার বাবুডাইং আদিবাসী আলোর পাঠশালায় ৫৫টি বাহারি গাছ লাগিয়েছে চাঁপাইনবাবগঞ্জ মুক্ত রোভার স্কাউট গ্রুপ। সংগঠনের ১০ বছর পূর্তি উপলক্ষে দুপুর ২টা থেকে বিকেল চারটা পর্যন্ত রাজশাহীর গোদাগাড়ী উপজেলার মোহনপুর ইউনিয়নের বরেন্দ্রভূমির বাবুডাইং গ্রামে অবস্থিত বিদ্যালয়টিতে এ কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়। বিদ্যালয়ে প্রাক-প্রাথমিক থেকে দশম শ্রেণি পর্যন্ত ৩১৮ জন শিক্ষার্থীকে পাঠদান করানো হয়।
সংগঠনের রোভার স্কাউট লিডার (আরএসএল) হেলাল উদ্দিন শেখ নাসিমের নেতৃত্বে কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন- সংগঠনের উপদেষ্টা সাঈদ মাহমুদ, সিনিয়র রোভারমেট মাসুম রেজা, রোভারমেট নাহিদা খাতুন, নাঈম আলী, আরাফাত রানা, তারেক আজিজসহ ১০ জনের একটি দল।
তাদের সহযোগিতা করেন বাবুডাইং আদিবাসী আলোর পাঠশালার প্রধান শিক্ষক আলী উজ্জামান নূর, সহকারী শিক্ষক সুদর্শন পালসহ অন্য শিক্ষকবৃন্দ।
উপদেষ্টা সাঈদ মাহমুদ বলেন, বর্তমানে আমাদের পরিবেশের চারদিকে প্লাস্টিক বর্জ্যরে অনেক ছড়াছড়ি। এতে প্রাকৃতিক সৌন্দর্য হারাচ্ছে ও মাটির উর্বরতা কমছে। তাই আমাদের লক্ষ্য এসব প্লাস্টিক বর্জ্য ধ্বংস করা বা পুনঃব্যবহার করা। এ উদ্দেশ্যেই প্লাস্টিক বর্জ্য হিসেবে বিভিন্ন বোতল, কনটেইনার ও বাটি সংগ্রহ করে সেগুলোতে বাহারি রঙের গাছ লাগানো। এজন্য সংগঠনের সদস্যরা নাইলন সুতা দিয়ে সিঁকা তৈরি করেন। এরপর সংগ্রহ করা প্লাস্টিক বোতল ও বাটিতে সারযুক্ত মাটি দিয়ে বাহারি গাছ লাগিয়ে সেগুলো বিদ্যালয়ের বারান্দাসহ একপাশের দেয়ালে ঝুলিয়ে দেয়া হয়। এতে যেমন সৌন্দর্য বৃদ্ধি হবে, তেমনি প্লাস্টিক পণ্যেরও পুনঃব্যবহার হচ্ছে। এছাড়া বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে টবে ও মাটিতে ফুল ও পাতা বাহারের গাছ লাগানো হয়েছে। সবমিলিয়ে ৫৫টি গাছ লাগানো হয়েছে। গাছগুলো লেগে গেলে প্লাস্টিক বোতলগুলো রঙ দিয়ে সুন্দর করে দেয়া হবে।
সংগঠনের এ কর্মসূচিকে স্বাগত জানিয়ে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আলী উজ্জামান নূর বলেন, এ কর্মসূচি দেখে বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরাও প্লাস্টিক বর্জ্য কুড়িয়ে সেগুলোতে বিভিন্ন ফুল, ফল বা বাহারি গাছ লাগানোতে উৎসাহ পাবে। শিক্ষার্থীরাও যদি এভাবে প্লাস্টিক বর্জ্যরে ব্যবহার শুরু করে, তবে আমাদের পরিবেশ আরো ভালো থাকবে। প্রকৃতিও সুন্দর হবে। আরো অনেকে উৎসাহ পাবে। এমন কর্মসূচি গ্রহণের জন্য সংগঠনকে অনেক ধন্যবাদ।