প্রায় তিন দশকে সবচেয়ে বেশি সাংবাদিক বন্দি এবার : সিপিজে

101

7imprisoned_2_12016বিশ্বব্যাপী এ বছর ২৫৯ জন সাংবাদিককে কারাবন্দি করা হয়েছে জানিয়ে কমিটি টু প্রটেক্ট জার্নালিস্টস-সিপিজে বলেছে, এই সংখ্যা প্রায় তিন দশকের মধ্যে সবচেয়ে বেশি। মুক্ত সাংবাদিকতার পরিবেশ তৈরি এবং সাংবাদিকদের সুরক্ষায় কাজ করা নিউ ইয়র্কভিত্তিক আন্তর্জাতিক সংগঠনটি মঙ্গলবার এই বার্ষিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। ১ ডিসেম্বর পর্যন্ত বিশ্বের বিভিন্ন দেশের সরকারি সংস্থার হাতে গ্রেপ্তার সাংবাদিকদের সংখ্যা উঠে এসেছে প্রতিবেদনে।  এতে বলা হয়েছে, তুরস্কে ব্যর্থ অভ্যুত্থান চেষ্টার পর সরকার যে দমন অভিযান চালিয়েছে তার শিকার হয়েছেন সাংবাদিকরাও। এ কারণেই বিশ্বব্যাপী কারান্তরীণ সাংবাদিকের সংখ্যা বেড়েছে। দেশটিতে ৮১ জন সাংবাদিককে বন্দি করা হয়েছে, যাদের সবার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহের অভিযোগ আনা হয়েছে। সিপিজের হিসাবে গত বছর এই সময়ে বিশ্বজুড়ে ১৯৯ জন সাংবাদিককে কারাবন্দি করা হয়েছিল। ১৯৯০ সাল থেকে তারা এই তথ্য সংগ্রহ করছেন। এর মধ্যে এবারই কারান্তরীণ সাংবাদিকের সংখ্যা সবচেয়ে বেশি। সিপিজের প্রতিবেদনে বাংলাদেশের দুই সাংবাদিক একুশে টেলিভিশনের সাবেক চেয়ারম্যান আবদুস সালাম এবং ব্লিটজ সম্পাদক সালাহউদ্দিন শোয়েব চৌধুরীর কারান্তরীণ থাকার কথা উঠে এসেছে। গত ১৫ জুলাই তুরস্কে ব্যর্থ সেনা অভ্যুত্থানের পর দমনাভিযান শুরু করে প্রেসিডেন্ট রিজেপ তায়েপ এরদোয়ান সরকার। দুই মাসের মধ্যে শতাধিক সাংবাদিককে গ্রেপ্তারের পাশাপাশি অন্তত একশ সংবাদমাধ্যম বন্ধ করা হয় বলে সিপিজের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে। তুরস্কের পর সবচেয়ে বেশি সাংবাদিক গ্রেপ্তার হয়েছেন চীনে। সিপিজের প্রতিবেদনে বলা হয়, ১ ডিসেম্বর পর্যন্ত দেশটিতে ৩৮ জন সাংবাদিককে গ্রেপ্তার করা হয়। “বেইজিং সাম্প্রতিক সপ্তাহগুলোতে প্রতিবাদ ও মানবাধিকার লংঘনের ঘটনা নিয়ে প্রতিবেদনকারী সাংবাদিকদের ওপর শক্তিপ্রয়োগ বাড়িয়েছে।” এ বছর তৃতীয় সর্বোচ্চ সংখ্যক ২৫ জন সাংবাদিক গ্রেপ্তার হয়েছেন মিশরে। তবে এ ক্ষেত্রে ইরানের অবস্থানের উন্নতি হয়েছে। ২০০৮ সালের পর এবারই প্রথম দেশটি সিপিজের তালিকার শীর্ষ পাঁচটি দেশের বাইরে এসেছে তারা।