প্রমত্তা পদ্মার ভাঙন দেখে এলেন জেলা প্রশাসক

14

চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার সদর উপজেলার নারায়ণপুর ও শিবগঞ্জ উপজেলার পাঁকা ইউনিয়নে পদ্মা নদীর ভাঙন এলাকা দেখে এসেছেন চাঁপাইনবাবগঞ্জের জেলা প্রশাসক এ কে এম গালিভ খাঁন। দীর্ঘ ৫ কিলোমিটারজুড়ে চলছে ভাঙনের খেলা। শনিবার পরিদর্শনকালে তিনি ভাঙনকবলিত মানুষের সাথে কথা বলেন, তাদের দুঃখ দুর্দশার কথা শোনেন এবং তারা যেন নিরাপদে থাকতে পারেন সেজন্য সর্বাত্মক সহযোগিতা করার আশ্বাস প্রদান করেন।
পরিদর্শনকালে উপস্থিত ছিলেনÑ সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার ইফফাত জাহান, শিবগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার (অ. দা.) জুবায়ের হোসেন, চাঁপাইনবাবগঞ্জ পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মোখলেসুর রহমান, জেলা প্রশাসনের সহকারী কমিশনার মিঠুন মৈত্রসহ সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ও সদস্য এবং এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।
পরিদর্শনকালে জেলা প্রশাসক ভাঙনকবলিত পাঁকা-নারায়ণপুন পাবলিক উচ্চ বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে এলাকার মানুষের সাথে মতবিনিময় করেন। এছাড়াও তিনি চাঁপাইনবাবগঞ্জ পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. মোখলেসুর রহমানকে সঙ্গে নিয়ে তাদের এরই মধ্যে নেয়া উদ্যোগ সরেজমিনে প্রত্যক্ষ করেন এবং নির্মিত বাঁধ রক্ষায় সার্বিক দিকনির্দেশনা প্রদান করেন।
উল্লেখ্য, চরাঞ্চলের ৫০/৬০ হাজার মানুষ, গবাদিপশু এবং অত্যন্ত উর্বর ফসলিজমিসহ, অনেক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, সরকারি বেসরকারি স্থাপনাসহ প্রধানমন্ত্রীর সদিচ্ছায় তিনশ কোটি টাকা ব্যয়ে সাবমেরিন বিদ্যুৎ সংযোগ রয়েছে।
চাঁপাইনবাবগঞ্জ পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. মোখলেসুর রহমান গৌড় বাংলাকে বলেনÑ জেলা প্রশাসক মহোদয় ভাঙন পরিদর্শনকালে সংশ্লিষ্ট সচিব মহোদয়ের সঙ্গে মুঠোফোনে কথা বলেছেন। তিনি চেষ্টা করছেন। এছাড়া ইতোমধ্যে চাঁপাইনবাবগঞ্জ-১ (শিবগঞ্জ) আসনের সংসদ সদস্য ডা. সামিল উদ্দিন আহমেদ শিমুল ও সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্য ফেরদৌসী ইসলাম জেসি মহোদয় ভাঙন এলাকা পরিদর্শন করেছেন এবং তারাও চেষ্টা করছেন।
মোখলেসুর রহমান আরো জানান, বর্তমানে শিবগঞ্জের মনোহরপুর ও রঘুনাথপুর এলাকায় পদ্মা নদীর পূর্ব পাড়ের ভাঙন প্রতিরোধে প্রায় ৬ মিটারজুড়ে জিও ব্যাগ ফেলা হচ্ছে।