প্রথম মৌসুম শেষ করলো ‘কোক স্টুডিও বাংলা’

4

গণসংগীত দিয়ে প্রথম মৌসুমের ইতি টানলো কোক স্টুডিও বাংলা। গত বৃহস্পতিবার তাদের অফিশিয়াল ফেসবুক পেজে ‘হেই সামালো’ নামের গণসংগীতটি শেয়ার করে প্রথম মৌসুম সমাপ্তির ঘোষণা দেয়া হয়। প্রথম মৌসুমের শেষ গান ‘হেই সামালো’ নিয়ে কোক স্টুডিও বাংলার পক্ষ থেকে জানানো হয়, ‘অধিকার আদায়ে কখনো এক ইঞ্চিও ছাড় দেইনি আমরা। যতবার বাধা এসেছে ততবার আমরা প্রতিবাদে সরব হয়েছি। আর সেই প্রতিবাদের অন্যতম মাধ্যম ছিলো আমাদের গণসংগীত। মানুষের দূর্বার জেগে ওঠার, নিজের অধিকার আদায়ে সোচ্চার হবার এক জীবন্ত দলিল ‘হেই সামালো’ গানটি। ১৯৪৬-১৯৪৮ এ এমন বঞ্চিত মানুষগুলোর তেভাগা আন্দোলন নিয়ে লেখা সলিল চৌধুরীর এই গানটি।’ শুধু ‘হেই সামালো’ নয়, এই গানটির সাথে ভাষা আন্দোলনের প্রেক্ষাপটে লেখা জনপ্রিয় গান ‘ওরা আমার মুখের কথা’ গানটির সংমিশ্রন অন্য মাত্রা তৈরী করে।

এ বিষয়ে আরও বলা হয়, ‘প্রতিবাদ জন্ম দেয় আরেক প্রতিবাদের। আর তাইতো ১৯৫২ তে আমাদের ভাষার প্রতি যে আঘাত দিয়েছিলো শাসকগোষ্ঠি,তার বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়িয়েছিলো বীর বাঙালি। তখনই জন্ম নিলো আবদুল লতিফের সেই অমর সৃষ্টি ‘ওরা আমার মুখের কথা’। সেই কালজয়ী গান যখন বান্দরবনের ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠির নিজস্ব বাঁশীতে অদ্ভুত জাদুকরি ধুন সৃষ্টি করেছে। এর সাথে যুক্ত হয়েছে রাইবেশে যুদ্ধনৃত্য যা এসেছে অন্যতম প্রাচীন লোকনৃত্য থেকে।’ গানটিতে কণ্ঠ দিয়েছেন সামিনা চৌধুরী, বাপ্পা মজমুদার, অর্ণব, কণা, সুনিধি সহ ‘কোক স্টুডিও বাংলা’র একঝাঁক পরিচিত মুখ। গানটি শেয়ার করে কোক স্টুডিও বাংলা জানায়, ‘বাংলা ভাষার প্রতি ভালোবাসাই আমাদের প্রথম মৌসুম-এর শেষ পরিবেশনা।

দেখা হবে শিগগির ‘কোক স্টুডিও বাংলা’র দ্বিতীয় মৌসুমে। কোক স্টুডিও বাংলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রথম মৌসুমের আবহ সংগীত ‘একলা চলো রে’ প্রকাশ করা হয়। সেই শুরু। এরপর দশটি গানে সাজানো হয় কোক স্টুডিও বাংলার প্রথম মৌসুম। মৌসুমের প্রথম গান ছিলো ‘নাসেক নাসেক’, অনিমেষ রায় ও পান্থ কানাইয়ের কণ্ঠে গানটি রীতিমত ঝড় তুলে। এরপর বেশ কিছু গান লাগাতার জনপ্রিয়তা পায়। প্রথম মৌসুমে অনিমেষ-পান্থ ছাড়াও গান করেছেন বাপ্পা মজুমদার, সামিনা চৌধুরী, মমতাজ,অর্ণব,বগা তালেব, ঋতুরাজ, কানিজ খন্দকার মিতু, জালালি সেট (ব্যান্ড), তাহসান রহমান খান, দিলশাদ নাহার কনা, নিগার সুমি, মাশা ইসলাম, সানজিদা মাহমুদ নন্দিতা, সৌম্যদীপ মুর্শিদাবাদী সহ অনেকে।