প্রথমবারের মতো তিনটা পদকই নিল জ্যামাইকার মেয়েরা

6

বিশ্ব অ্যাথলেটিকস চ্যাম্পিয়নশিপে ছেলেদের ১০০ মিটার ইভেন্টে সোনা, রুপা ও ব্রোঞ্জÑ তিনটা পদকই গিয়েছিল যুক্তরাষ্ট্রের ঘরে। এবার মেয়েদের ১০০ মিটার ইভেন্টেও পুনরাবৃত্তি ঘটল একই দৃশ্যের। প্রথমবারের মতো তিনটা পদকই নিল জ্যামাইকার মেয়েরা। টোকিও অলিম্পিকে অবশ্য তেমনটাই হয়েছে। তবে তার চেয়েও বিস্ময়কর হলোÑ৩৫ বছর বয়সে শেলি অ্যান ফ্রেজার স্বর্ণ জেতা। যেখানে এই বয়সে অবসরে সময় কাটান অন্য অ্যাথলেটরা। সেখানে তিনি উপহার দিলেন বিশ্বচ্যাম্পিয়নশিপে নিজের ক্যারিয়ার সেরা টাইমিং।

এর আগে চার বার বিশ্বচ্যাম্পিয়নশিপে পেয়েছেন দ্রুততম মানবীর খেতাব; কিন্তু এবার ছাড়িয়ে গেলেন আগের চার বারকে। দৌড় শেষ করেন ১০ দশমিক ৬৭ সেকেন্ডে। রৌপ্য ও ব্রোঞ্জ জিতেন তারই স্বদেশি শেরিকা জ্যাকসন ও এলেইন থম্পসন হেরা। ২০১৭ সালে মা হওয়ার পর শঙ্কায় ছিলেন সেরা সময় তো দূরের কথা হয়তো পূর্ণ শক্তিও আর ফিরে পাবেন; কিন্তু সময় যত এগোচ্ছে ততই নিজের গরিমা বাড়িয়ে চলছেন শেলি। গত বছর টোকিও অলিম্পিকে এলেইন থম্পসনের পেছনে থেকে জেতেন রৌপ্য; কিন্তু বিশ্বচ্যাম্পিয়নশিপে পাঁচ বছরের ছোট থম্পসনকে এবার শূন্য দশমিক ১৪ সেকেন্ড পেছনে ফেলেন তিনি।

সোনা জিতে ফ্রেজার বলেন, ‘আমার বিশ্বচ্যাম্পিয়নশিপ শিরোপাগুলোর মধ্যে এটাই সবচেয়ে বেশি পছন্দের। কারণ ৩৫ বছর বয়সে এটা করেছি আমি, হ্যাঁ ৩৫-ই বলেছি। ৩৫ বছর বয়সেও এমন প্রতিভা ধরে রাখায় নিজেকে ধন্য মনে হচ্ছে। বাচ্চার মা হওয়ার পরও এমন পারফর্ম করে যাচ্ছি। আমি সবসময় বিশ্বাস করি, আমি আরো জোরে দৌড়াতে পারি। আমি যেদিন নিজেকে নিয়ে এটা বিশ্বাস করব না, সেদিন আমি ট্র্যাকেই নামব না।’