দৈনিক গৌড় বাংলা

শনিবার, ১৮ই মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৪ঠা জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১০ই জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি

প্রতিরক্ষামন্ত্রী সের্গেই শোইগুকে সরিয়ে দিচ্ছেন পুতিন

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভøাদিমির পুতিন তার দীর্ঘদিনের মিত্র সের্গেই শোইগুকে প্রতিরক্ষামন্ত্রীর পদ থেকে সরিয়ে দিয়েছেন। তার জায়গায় ভারপ্রাপ্ত প্রথম উপ-প্রধানমন্ত্রী আন্দ্রেই বেলোসভকে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। গত রোববার রাতে ক্রেমলিনের মুখপাত্র দিমিত্রি পেসকভ জানান, প্রেসিডেন্টের এক ডিক্রির মাধ্যমে এমন ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি এ খবর জানিয়েছে। রুশ পার্লামেন্টের উচ্চ কক্ষ থেকে প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ৬৮ বছর বয়সী শোইগু ২০১২ সাল থেকে রাশিয়ার প্রতিরক্ষামন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। অবশ্য প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে সরানো হলেও শোইগুকে পাঠানো হচ্ছে অন্য দায়িত্বে। তাকে রাশিয়ার নিরাপত্তা পরিষদের প্রধান হিসেবে নিয়োগ দিচ্ছেন পুতিন। নিরাপত্তা পরিষদের প্রধান হিসেবে এতোদিন দায়িত্ব পালন করেছেন নিকোলাই পাত্রুশেভ। তার জায়গায় শোইগুইকে নিয়োগ দিচ্ছেন পুতিন। তবে পাত্রুশেভের নতুন পদ কী হবে তা এখনও স্পষ্ট নয়। রুশ প্রেসিডেন্ট পুতিনের ঘনিষ্ঠ বন্ধু হিসেবে পরিচিত সের্গেই শোইগু। পুতিন যখন তার জন্মভূমি সাইবেরিয়ায় মাছ ধরতে যান, তখন প্রায়ই তার সঙ্গী হন শোইগু। সামরিক অভিজ্ঞতা না থাকা সত্ত্বেও পুতিন তাকে প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব দিয়েছিলেন। পেশায় সিভিল ইঞ্জিনিয়ার শোইগু ১৯৯০ সালে দুর্যোগ ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বে ছিলেন। গত বছর ইউক্রেন যুদ্ধের সময় ভাড়াটে যোদ্ধা গোষ্ঠী ওয়াগনার গ্রুপের প্রধান প্রিগোজিনের সঙ্গে প্রকাশ্য বিরোধে জড়িয়ে পড়েছিলেন শোইগু। সে সময় প্রিগোজিন তাকে বয়স্ক জোকার বলে কটাক্ষ করেছিলেন। তবে শোইগুর স্থলাভিষিক্ত হতে যাওয়া ৬৫ বছর বয়সী বেলোসভেরও খুব একটা সামরিক অভিজ্ঞতা নেই। তার সম্পর্কে দিমিত্রি পেসকভ বলেছেন, একজন বেসামরিক অর্থনীতিবিদকে প্রতিরক্ষামন্ত্রী হিসেবে নিয়োগ দেওয়া নিঃসন্দেহে নতুন আবিষ্কার। রাশিয়ার অর্থনীতিকে চলমান যুদ্ধের প্রচেষ্টার সাথে আরও ঘনিষ্ঠভাবে একতাবদ্ধ করতেই পুতিনের এই উদ্যোগ বলে মনে করছেন বিশ্লেষকরা। টানা দুই বছর ধরে চলমান ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে রাশিয়ার অর্থনীতি এখন বেশ বেকায়দায় রয়েছে। যুদ্ধে অর্থায়নের জন্যও প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের পর্যাপ্ত বাজেট থাকা দরকার-এটাও একটা কারণ হতে পারে বলে ধারণা করছেন বিশ্লেষকরা।

 

About The Author

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *