দৈনিক গৌড় বাংলা

শুক্রবার, ১৭ই মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৩রা জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ৯ই জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি

পেনাল্টি নিয়ে বিবাদ, যা বললেন চেলসি কোচ

ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে এভারটনের বিপক্ষে ৬-০ গোলের বিশাল জয়। তাতে আবার চার গোল কোল পালমারের। দলের স্মরণীয় পারফরম্যান্সে চেলসি কোচ মাউরিসিও পচেত্তিনোর আনন্দে থাকার কথা! কিন্তু সেটি ছাপিয়ে আর্জেন্টাইন কোচকে ভাবাচ্ছে পেনাল্টি নিয়ে হয়ে যাওয়া বিবাদ! সোমবার ঘটনাটা ঘটেছে দ্বিতীয়ার্ধে। তখন স্কোর লাইন ছিল ৪-০। পরবর্তী পেনাল্টি শট কে নেবে সেটি নিয়েই চলে একরকমের যুদ্ধ। অথচ ক্লাব থেকে পেনাল্টির জন্য মনোনীত ব্যক্তিটি হলেন পালমার। তার পরেও স্পট কিক নেওয়া নিয়ে বল কাড়াকাড়ি করেছেন নিকোলাস জ্যাকসন ও ননি মাদুয়েকে। পরে অধিনায়ক কনর গ্যালাগার হস্তক্ষেপ করে শট নেওয়ার জন্য বল পালমারের হাতে তুলে দিয়েছেন। মাঠে এমন বিশৃঙ্খলা মোটেও পছন্দ হয়নি চেলসি কোচের। পচেত্তিনো ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেছেন, ‘খেলোয়াড় আর স্টাফরা খুব ভালো করেই জানে পেনাল্টি নেওয়ার জন্য মনোনীত কোল পালমার। কিন্তু যা মাঠে হলো, সেটা নিয়ে আমি ভীষণ মর্মাহত। আমাদের দলে শৃঙ্খলাই মূল বিষয়।’

জ্যাকসন ও মাদুয়েকের কা-টা যে সঠিক ছিল না সেটা স্বীকার করেছেন পচেত্তিনো। ওই সময় অধিনায়কের দায়িত্বশীলতার প্রশংসা করেছেন তিনি, ‘আমরা সবাই স্বীকার করি জ্যাকসন আর মাদুয়েকে সবাই ভুল ছিল। ওরা সেরকম অভিজ্ঞও নয়, খুব তরুণ। তবে গ্যালাগার যেভাবে এগিয়ে এসেছে সেটা প্রশংসাযোগ্য।’ তবে এই ধরনের ব্যবহার যে অগ্রহণযোগ্য সেটাও মনে করিয়ে দিয়েছেন তিনি, ‘আমরা এই ধরনের ব্যবহার দেখাতে পারি না। মনে হচ্ছে আমরা কোনো স্কুলে এবং আমাদের কাজ হচ্ছে তাদের ভুলটা ধরিয়ে দেওয়া। শাস্তি হয়তো হচ্ছে না। কিন্তু এই ধরনের ঘটনা আর ঘটা উচিত নয়। পালমার মাঠে থাকলে সেই পেনাল্টি নেবে।’ পচেত্তিনো অবশ্য তার পর ক্ষমা চেয়েছেন এই ঘটনায়। তার মতে, এটাতে ক্লাবটির ভাবমূর্তি ক্ষুণœ হয়েছে।

About The Author

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *