পেঁপের জানা-অজানা তথ্য

73

01-

পাকা পেঁপের কালো বিচি খেতে একটু তেজী স্বাদের। কচি বা কাঁচা পেঁপে মাংস রান্নায় ব্যবহার করা হয়। কারণ এতে রয়েছে পাপাইন, যা মাংস দ্রুত নরম হতে সাহায্য করে। আর বিশ্বের কোথাও কোথাও পেঁপে গাছের পাতা দিয়ে চা তৈরি হয় যা ম্যালেরিয়ার নিরাময়ক। গ্রীষ্মম-লীয় জনপ্রিয় ফল পেঁপে সম্পর্কে রয়েছে এমন জানা-অজানা অনেক তথ্য।

ধরন
পেঁপের আদিনিবাস দক্ষিণ মেক্সিকো ও কেন্দ্রীয় আমেরিকায়। সাধারণত দুই ধরনের পেঁপে চাষ করা হয়। লাল পেঁপে খেতে মিষ্টি ও এর মাংসল অংশ লাল বা কমলা রঙের হয়। অন্যদিকে হলুদ পেঁপের মাংসল অংশ হলদেটে হয়ে থাকে। যদিও পেঁপে দুই ধরনের, তবে স্থানভেদে এদের বিভিন্ন নাম রয়েছে যেমন- সানরাইজ, হানি ডিউ, পুসা, ওয়াশিংটন ইত্যাদি।

ব্যবহার
পাকা পেঁপে ফল বা জুস হিসেবে খাওয়া হয়। আবার কাঁচা পেঁপে সালাদ, মসলাদার রান্না ও ভাপে রান্না করে খাওয়া যায়। বিশ্বের কোথাও কোথাও পেঁপে গাছের পাতা দিয়ে চা তৈরি হয় যা ম্যালেরিয়ার নিরাময়ক। ত্বকের কাটাছেঁড়া, ৠাশ ও ত্বক পুড়ে গেলে কাঁচা পেঁপের রস উপকারি। এছাড়াও চুলের কন্ডিশনিংয়ে পাকা পেঁপে প্যাক হিসেবে ব্যবহার করা হয়।

পুষ্টিগত মান
পেঁপে এন্টি-অক্সিডেন্ট যেমন- ক্যারোটিন, ভিটামিন সি ও ফ্লেভোনয়েডের গুরুত্বপূর্ণ উৎস।
এর মধ্যকার ভিটামিন বি, ফলেট ও প্যানথোনিক এসিড সুস্থ কার্ডিওভাস্কুলার সিস্টেম নিয়ন্ত্রণ করতে সাহায্য করে ও কোলন ক্যানসারের ঝুঁকি হ্রাস করে।
পেঁপের ডায়জেস্টিভ এনজাইম পাপাইন খেলাধুলাজনিত কারণে প্রাপ্ত আঘাত সারায়।
পাপাইন ও চ্যামোপাপাইন দুটি প্রোটিন-ডায়জেস্টিং এনজাইম প্রদাহজনিত সমস্যা সমাধান করে।
গ্রিন টির সঙ্গে পেঁপে খেলে প্রোস্টেট ক্যানসারের ঝুঁকি কমে। কারণ এ দুটোই লাইকোপেনের উৎকৃষ্ট উৎস।

জানেন কি?
ক্রিস্টোফার কলোম্বাস পেঁপেকে “fruit of the angels” বলতেন। তথ্যসূত্র: ইন্টারনেট।