পূজার সাজে ছবি দিয়েই বিপাকে নুসরাত

8

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এর আগেও ব্যঙ্গের শিকার হয়েছেন কলকাতার অভিনেত্রী নুসরাত জাহান। তিনি সবসময় নেটিজেনদের লক্ষ্যবস্তুতে থাকেন। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তাকে নিয়ে চলতে থাকে ব্যঙ্গ, বিদ্রƒপ। কখনো পোশাক নিয়ে, কখনো রোগা হওয়া নিয়ে, কখনো হিন্দু উৎসবে শামিল হওয়া নিয়ে সমালোচকদের নিশানায় থাকেন তিনি। শনিবার শারদীয় দূর্গাপূজার ষষ্ঠীর সকালে নিজের শাড়ি পড়া ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করেছিলেন এই অভিনেত্রী। পেঁয়াজি রঙের সিল্প, সঙ্গে ভলভেটের ব্লাউজ। কানে বড় ঝুমকা। মাথার খোঁপায় লাগানো ফুল।

তবে এই ছবিটি নেটিজেনদের সবচেয়ে বেশি নজরে এসেছে নুসরাতের সিঁথিতে দেয়া সিঁদুরের কারণে। ব্যস আর কি, ব্যঙ্গ শুরু! সম্প্রতি অনেকটাই ওজন ঝরিয়ে ফেলেছেন এই অভিনেত্রী। তবে অনেকের কাছে এটার জন্যই নাকি ‘অসুস্থ’ লাগছে তাঁকে। তাঁর সেই পোস্টে একজন মন্তব্য করেছেন, ‘সব হাড্ডি বেরিয়ে এসেছে, এবার তো ঝড় এলে উড়ে যাবে। ’সেই সঙ্গে তাঁর মাথায় সিঁদুর পড়া নিয়েও অনেকে কটাক্ষ করেছেন ধর্ম তুলে। একজন মন্তব্য করেছেন, ‘মুসলিম হয়েও হিন্দু ধর্ম পালন করে, মাথায় সিঁদুর পড়ে। এরকম নারীদের দোজখে যাওয়া উচিত। ’কেউ একজন প্রশ্ন করে লিখেছেন, ‘তুমি নিশ্চিত তো এই মাথার সিঁদুরটা যশের নামেই পড়েছো?’

গত বছর পূজার পরপরই নিজেকে যশের স্ত্রী হিসেবে দাবি করেছিলেন নুসরাত। যদিও বিয়েটা কবে কোথায় হয়েছে সে ব্যাপারে বিস্তারিত তিনি কখনোই জানাননি। পূজার আগে আগস্ট মাসে তিনি জন্ম দিয়েছিলেন ছেলে ঈশানের। যার পিতৃ-পরিচয় নিয়েও অনেক কথা হয়েছিল। পরে বার্থ সার্টিফিকেট ভাইরাল হয়ে যায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। যেখানে দেখা যায় ঈশান আসলে যশের সন্তান। এরপর থেকেই নানারকম সমালোচনার মুখে রয়েছেন এই অভিনেত্রী। সূত্র : হিন্দুস্তান টাইমস বাংলা