পুড়ে যাওয়া বিএম ডিপোর আংশিক কার্যক্রম শুরু

5

আগুন ও বিস্ফোরণে পুড়ে যাওয়া চট্টগ্রামের সীতাকু-ের বিএম কনটেইনার ডিপো লিমিটেডকে প্রাথমিকভাবে শুধু খালি কনটেইনার ওঠানো-নামানো ও সংরক্ষণের অনুমতি দিয়েছে কাস্টমস।
ডিপো কর্তৃপক্ষের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে গত ২২ আগস্ট চট্টগ্রাম কাস্টমস দুটি শর্তে অনুমতি দেওয়ার পর কার্যক্রম শুরু করেছে ডিপো কর্তৃপক্ষ। এখন আমদানি-রপ্তানি কার্যক্রম শুরুর অনুমোদনের জন্য কাস্টমসের কাছে আবেদন করেছে ডিপো কর্তৃপক্ষ।
মঙ্গলবার বিষয়টি নিশ্চিত করেন বিএম কনটেইনার ডিপোর জেনারেল ম্যানেজার ক্যাপ্টেন (অব.) মাইনুল আহসান খান। তিনি বলেন, বিএম ডিপোতে আমাদের কার্যক্রম শুরু হয়েছে। কাস্টমের অনুমতি পাওয়ার পর খালি কনটেইনার ওঠানো-নামানো শুরু হয়েছে।
চট্টগ্রাম কাস্টমস সূত্রে জানা গেছে, পরিবেশ অধিদপ্তর, বিস্ফোরক অধিদপ্তর ও ফায়ার সার্ভিসের ছাড়পত্র ১৫ দিনের মধ্যে নেয়া ও ১৫ দিনের মধ্যে কাছাকাছি কোনো অগ্নিনির্বাপন কার্যালয় বা ফায়ার স্টেশনের সঙ্গে সমঝোতা স্মারক সই করার শর্তে তাদেরকে খালি কনটেইনার ওঠানো-নামানোর অনুমতি দেওয়া হয়েছে।
গত ২২ আগস্ট অনুমতি পাওয়ার পর প্রতিদিন বন্দর ও কারখানা চত্বর থেকে খালি কনটেইনার ডিপোতে নিয়ে সংরক্ষণ করা হচ্ছে। আবার ডিপো থেকে খালি কনটেইনার বন্দরে পাঠানো হচ্ছে।
এদিকে ডিপো কর্তৃপক্ষ গত সোমবার আমদানি-রপ্তানি কার্যক্রম শুরুর অনুমোদনের জন্য কাস্টমসের কাছে আবেদন করেছে বলে জানা গেছে।