পারমাণবিক অস্ত্রের মহড়া শুরু করেছে ন্যাটো

6

পারমাণবিক অস্ত্রের মহড়া শুরু করেছে উত্তর আটলান্টিক নিরাপত্তা জোট (ন্যাটো)। পশ্চিম ইউরোপে শরু হওয়া ওই মহড়াকে নিয়মিত মহড়া বলে উল্লেখ করা হয়েছে। রাশিয়ার সঙ্গে চলমান উত্তেজনার মধ্যেই এই মহড়া শুরু হলো। খবর এএফপির। ৩০টি সদস্য দেশের এই সামরিক জোট জোর দিয়ে বলছে যে, এটি রুটিনমাফিক, চলমান প্রশিক্ষণ কার্যকলাপ যা আগামী ৩০ অক্টোবর পর্যন্ত চলবে। ন্যাটোর দাবি, রাশিয়া ইউক্রেনে হামলা চালানোর আগেই এই মহড়ার পরিকল্পনা করা হয়। গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে আকস্মিক হামলা চালায় মস্কো। তবে ন্যাটোর এই দাবি সত্যি হলেও বর্তমান পরিস্থিতিতে এই মহড়া রাশিয়ার সঙ্গে নতুন করে উত্তেজনা তৈরি করতে পারে। যুক্তরাষ্ট্রের দূরপাল্লার বি-৫২ বোমারু বিমান ওই মহড়ায় অংশ নেবে এবং মোট ৬০টি বিমান বেলজিয়াম, যুক্তরাজ্য এবং উত্তর সাগরের ওপর দিয়ে প্রশিক্ষণে অংশ নেবে।

তবে রাশিয়ার সঙ্গে উত্তেজনা থাকলেও এই মুহূর্তে মহড়া থেকে সরে আসতে রাজি নন ন্যাটোর প্রধান জেনস স্টলটেনবার্গ। গত সপ্তাহে এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, আমরা যদি এখন হঠাৎ করেই ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে দীর্ঘ পরিকল্পিত এই মহড়া বাতিল করি তবে তা হবে একটি খুব ভুল সংকেত। তিনি বলেন, আমাদের বুঝতে হবে যে ন্যাটোর দৃঢ়তা, অনুমান নির্ভর আচরণ, আমাদের সামরিক শক্তি সব ধরনের উত্তেজনা প্রতিরোধের সর্বোত্তম উপায়। তিনি আরও বলেন, রাশিয়া তাদের নিজেদের অবস্থান থেকে সরে আসেনি। তবে আমাদের অবশ্যই এ বিষয়ে সতর্ক থাকতে হবে। এর আগে ইউক্রেন যুদ্ধে পারমাণবিক অস্ত্র ব্যবহারের হুঁশিয়ারি দিয়েছেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভøাদিমির পুতিন। এজন্য ধারণা করা হচ্ছে, শিগগিরই পারমাণবিক অস্ত্রের মহড়া চালাতে পারে রাশিয়া। এর মাধ্যমে যুক্তরাষ্ট্র ও তার মিত্রদের চ্যালেঞ্জ করা হবে।

যাতে তারা কেবল অনুশীলন ও আসল জিনিসের মধ্যে পার্থক্য বুঝতে পারে। যুক্তরাষ্ট্রের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, বছরের এই সময়ে রাশিয়া সাধারণত তাদের পারমাণবিক অস্ত্রের মহড়া পরিচালনা করে থাকে। পশ্চিমা নেতারা মনে করছেন, কয়েক দিনের মধ্যেই তাদের মহড়া শুরু হতে পারে। রাশিয়ার মহড়ায় ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র অন্তর্ভুক্ত থাকতে পারে। তবে রাশিয়া এই ধরনের মহড়া শুরুর আগেই ন্যাটোর মহড়া শুরু হয়তো মস্কোকে সতর্ক বার্তা দিচ্ছে বলে মনে করা হচ্ছে। এর আগে জেনস স্টলটেনবার্গ ব্রাসেলসে এক সংবাদ সম্মেলনে আশ্বাস দেন যে, সামরিক জোট রাশিয়ার বার্ষিক পারমাণবিক মহড়া খুব কাছ থেকে পর্যবেক্ষণ করবে। এ ছাড়া হোয়াইট হাউজের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জন কিবরি জানান, ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপসহ রাশিয়ান কৌশলগত পারমাণবিক বাহিনী বড় ধরণে মহড়া চালাতে পারে। যদিও তিনি এটিকে নিয়মিত মহড়া হিসেবে আখ্যায়িত করেন তিনি।