পাকিস্তানে তেল ট্যাংকারের সঙ্গে বাসের সংঘর্ষে নিহত ২০

7

পাকিস্তানে ভয়াবহ সড়ক দুর্ঘটনায় কমপক্ষে ২০ জন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও ছয় বাস যাত্রী। মঙ্গলবার ভোরে দেশটির পাঞ্জাব প্রদেশের মুলতান-সুক্কুর মোটরওয়েতে একটি তেল ট্যাংকারের সঙ্গে যাত্রীবাহী বাসের সংঘর্ষে হতাহতের এ ঘটনা ঘটে। কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে মঙ্গলবার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে পাকিস্তানি সংবাদমাধ্যম দ্য ডন। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, মুলতানের ডেপুটি কমিশনার তাহির ওয়াট্টু এক বিবৃতিতে এ দুর্ঘটনা ও হতাহতের ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেছেন, লাহোর থেকে করাচিগামী যাত্রীবাহী বাসটি মুলতান-সুক্কুর মোটরওয়ের জালালপুর পিয়ারওয়ালা ইন্টারচেঞ্জে পেছন দিক থেকে তেলের ট্যাংকারকে ধাক্কা দেয়। বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে, তেলের ট্যাংকারকে পেছন থেকে ধাক্কা দেওয়ার পরই আগুন ছড়িয়ে পড়ে এবং ঘটনাস্থলেই ২০ জন মারা যায়। পরে মুলতানের কমিশনার আমির খট্টকও এক টুইট বার্তায় দুর্ঘটনার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। মঙ্গলবার ভোর ৪টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে বলে জানান তিনি।

অবশ্য পাঞ্জাবের লাহোরে রেসকিউ ১১২২ এর প্রাদেশিক মনিটরিং সেন্টারের একটি বিবৃতিতে বলা হয়েছে, দুর্ঘটনাটি ঘটেছে মঙ্গলবার গভীর রাত ২টা ২০ মিনিটে। এ ছাড়া, মুলতানের কমিশনারের অ্যাকাউন্ট থেকে শেয়ার করা দুর্ঘটনাস্থলের ছবিগুলোতে বাস এবং তেলের ট্যাংকারের পুড়ে যাওয়া ধ্বংসাবশেষ দেখা গেছে। এদিকে, মোটরওয়ে পুলিশের একজন মুখপাত্রের বরাত দিয়ে ডন নিউজ টিভি জানিয়েছে, দুর্ঘটনাকবলিত তেলের ট্যাংকারটি কয়েক হাজার লিটার পেট্রোল বহন করছিল। তিনি আরও জানান, বাস চালক ঘুমিয়ে পড়ার কারণে ভয়াবহ এ দুর্ঘটনা ঘটেছে বলে এখন পর্যন্ত মনে করা হচ্ছে।