পাকিস্তানের মসজিদে হামলা চালিয়েছে আইএস, নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৫৭

5

পাকিস্তানের পেশোয়ারের একটি মসজিদে প্রাণঘাতী হামলার দায় স্বীকার করেছে জঙ্গিগোষ্ঠী আইএস। গত শুক্রবারের এ ঘটনায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৫৭ জনে, আহত হয়েছেন প্রায় ২০০ জন। খাইবার পাখতুনখাওয়া পুলিশের ইন্সপেক্টর-জেনারেল (আইজি) মোয়াজ্জাম জাহ আনসারি সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, হামলায় পুলিশের এক সদস্য নিহত ও আরেকজন গুরুতর আহত হয়েছেন।

তিনি বলেন, সন্ত্রাসী একা ছিল ও পায়ে হেঁটেই মসজিদে গিয়েছিল। সে প্রথমে মসজিদের বাইরে নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা দুই পুলিশ সদস্যের ওপর গুলি চালায়। এতে একজন নিহত ও আরেকজন আহত হন। পুলিশের ওপর হামলার পরেই আক্রমণকারী মসজিদের ভেতরে দৌঁড়ে যায় ও বিস্ফোরণ ঘটায়। আইজি বলেন, ওই সন্ত্রাসী মুসল্লিদের ওপর প্রথমে গুলি চালায় ও পরে আত্মঘাতী বিস্ফোরণ ঘটায়। এতে পাঁচ থেকে ছয় কেজি বিস্ফোরক ব্যবহার করা হয়েছিল বলে জানিয়েছেন এ পুলিশ কর্মকর্তা।

তবে এ ঘটনায় কোন গোষ্ঠীর হাত রয়েছে, তা উল্লেখ করেননি তিনি। অবশ্য এর কয়েক ঘণ্টা পরেই হামলার দায় স্বীকার করে বিবৃতি দেয় জঙ্গিগোষ্ঠী আইএস। নিজস্ব প্রোপাগান্ডা সাইটে তারা বলেছে, গতকাল পেশোয়ারের একটি শিয়া মসজিদে আইএস সফল হামলা চালিয়েছে। শুক্রবার জুমার নামাজের সময় পেশোয়ারের কিসা খোয়ানি বাজারের একটি মসজিদে এ হামলা চালায় জঙ্গিরা। এ ঘটনায় গভীর শোক ও হামলার নিন্দা জানিয়েছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান, পার্লামেন্টের বিরোধী দলীয় নেতা শাহবাজ শরিফ, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী শেখ রশিদসহ অন্যান্য নেতারা।
সূত্র: এএফপি, জিও নিউজ