পাকিস্তানকে হারিয়ে বাংলাদেশকে নিউজিল্যান্ডের ধাক্কা

4

ত্রিদেশীয় সিরিজে নিজেদের প্রথম দেখায় পাকিস্তানের কাছে ৬ উইকেটে হারতে হয়েছিলো স্বাগতিক নিউজিল্যান্ডকে। দ্বিতীয় দেখায় যেন সেই হারের প্রতিশোধ নিয়ে নিলো কিউইরা। সিরিজে নিজেদের মধ্যকার দ্বিতীয় ম্যাচে পাকিস্তানকে ¯্রফে উড়িয়ে দিয়ে ৯ উইকেটের জয় পেয়েছে কেন উইলিয়ামসনের দল। নিউজিল্যান্ডের এই জয়ে শঙ্কায় পড়ে গেলো বাংলাদেশের ফাইনালে ওঠার আশাও। এখন পর্যন্ত তিন ম্যাচে নিউজিল্যান্ড আর পাকিস্তান দুই দলেরই অর্জন সমান ৪ পয়েন্ট করে। রানরেটে এগিয়ে কিউইরা আছে এক নম্বরে, পাকিস্তান দ্বিতীয় স্থানে। বাংলাদেশ জয় পায়নি নিজেদের প্রথম দুই ম্যাচের একটিতেও। টাইগারদের ফাইনালে উঠতে হলে শেষ দুই ম্যাচে দুই প্রতিপক্ষকেই হারাতে হবে। শুধু হারালেই হবে না, রানরেটও বাড়াতে হবে অনেক বেশি। আর যেকোনো একটি ম্যাচে হেরে গেলেও বাদ ফাইনালে ওঠার স্বপ্ন শেষ সেখানেই। ক্রাইস্টচার্চে গতকাল মঙ্গলবার ১৩১ রানের লক্ষ্য সহজেই পেরিয়ে গেছে নিউজিল্যান্ড। ১১৭ রানের উদ্বোধনী জুটিতেই জয় নিশ্চিত করে ফেলেন ফিন অ্যালেন আর ডেভন কনওয়ে।

টস জিতে ব্যাটিং নিয়ে ভালো করতে পারেনি পাকিস্তান। ফর্মে থাকা রিজওয়ান ফিরে যান ১৭ বলে ১৬ রান করেই। দ্বিতীয় উইকেটে বাবর আজম আর শান মাসুদ মিলে দলকে এগিয়ে নিতে থাকলেও হঠাৎই ধাক্কা খায় পাকিস্তান। ১ উইকেটে ৫৪ রান থেকে ৭৭ রান তুলতেই পাকিস্তান হারিয়ে বসে আরও ৪ উইকেট। ৬ষ্ঠ উইকেটের জুটিতে ৩৫ বলে ৫১ রান তুলে দলের রানকে সম্মানজনক অবস্থানে নিয়ে যান আসিফ আলি আর ইফতিখার আহমেদ। ২৭ বলে ২৭ রান করেন ইফতিখার আর আসিফ করেন ২০ বলে ২৫ রান। নির্ধারিত ২০ ওভারে শেষে ৯ উইকেটে ১৩০ রান তুলতে সক্ষম হয় বাবর আজমের দল। নিউজিল্যান্ডের টিম সাউদি, মাইকেল ব্রেসওয়েল ও মিচেল স্যান্টনার নেন দুটি করে উইকেট। ১৩১ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে উদ্বোধনী জুটিতেই জয় নিশ্চিত করে ফেলে নিউজিল্যান্ড। ৪২ বলে ঝড়ো ৬২ রান করা ফিন অ্যালেন যখন শাদাব খানের বলে স্ট্যাম্পিং হয়ে মাঠ ছাড়েন কিউইদের জয়ের জন্য তখন দরকার মাত্র ১৪ রান। তিনে নামা কিউই অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন ৯ বল ৯ রান করে দলের জয় নিশ্চিত করেন। আর ওপেনিংয়ে নামা কনওয়ে অপরাজিত থাকেন ৪৬ বলে ৪৯ রান করে।
সংক্ষিপ্ত স্কোরকার্ড:
পাকিস্তান: ২০ ওভারে ১৩০/৭ (বাবর আজম ১৭, ইফতিখার আহমেদ ২৭, আসিফ আলী ২৫; টিম সাউদি ৪-০-৩১-২, মিচেল স্যান্টনার ৪-০-২৭-২, মাইকেল ব্রেসওয়েল ৪-০-১১-২)।
নিউজিল্যান্ড: ১৬.১ ওভারে ১৩১/১ (ফিন অ্যালেন ৬২, ডেভন কনওয়ে ৪৯*, কেন উইলিয়ামসন ৯*; শাদাব খান ৪-০-২৬-১)।
ফলাফল: নিউজিল্যান্ড ৯ উইকেটে জয়ী।