পর্তুগালের ১০-এ ‘দশ’

2

পুরোটা সময় আইসল্যান্ডের ওপর ছড়ি ঘোরাল পর্তুগাল। জালের দেখা পেলেন ব্রুনো ফের্নান্দেস ও রিকার্দো হোর্তা। শতভাগ জয়ের ধারা ধরে রেখে ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপের বাছাই শেষ করল পর্তুগিজরা। ঘরের মাঠে রোববার রাতে ‘জে’ গ্রুপের ম্যাচটি ২-০ গোলে জিতেছে রবের্তো মার্তিনেসের দল। আগামী বছর জার্মানিতে অনুষ্ঠেয় ইউরোর মূল পর্বের টিকেট তিন ম্যাচ বাকি থাকতেই নিশ্চিত করে পর্তুগাল। বাছাইয়ে ১০ ম্যাচের সবগুলোই জিতল তারা। গত তিন ম্যাচে জালের দেখা পাওয়া দলের সেরা তারকা ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো এ দিন বেশ কয়েকটি সুযোগ পেলেও কাজে লাগাতে পারেননি। বাছাইয়ে তিনি করেছেন ১০ গোল।

ম্যাচজুড়ে আধিপত্য দেখানো পর্তুগাল প্রথম সুযোগ পায় দ্বিতীয় মিনিটে। রুবেন দিয়াসের ক্রস থেকে বক্সে রোনালদোর হেড উড়ে যায় ক্রসবারের ওপর দিয়ে। সপ্তম মিনিটে দুরূহ কোণ থেকে ওটাভিওর শট ক্রসবারে লাগে। ২৫তম মিনিটে সুযোগ হারান গনসালো ইনাসিও। ফের্নান্দেসের ক্রসে কাছ থেকে অরক্ষিত ডিফেন্ডারের হেড যায় বাইরে দিয়ে। ৩৭তম মিনিটে চমৎকার গোলে ডেডলক ভাঙেন ফের্নান্দেস। বের্নার্দো সিলভার ব্যাকহিল ফ্লিকে বক্সের ঠিক বাইরে বল পেয়ে ডান পায়ের শটে দূরের পোস্ট দিয়ে লক্ষ্যভেদ করেন ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের মিডফিল্ডার। দ্বিতীয়ার্ধেও আধিপত্য ধরে রেখে খেলতে থাকে পর্তুগাল।

৬৬তম মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন হোর্তা। জোয়াও ফেলিক্সের নিচু শট গোলরক্ষক ঠেকালেও বল নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারেননি। কাছ থেকে ফিরতি বলে রোনালদোর প্রচেষ্টা গোলরক্ষক আটকে দেওয়ার পর আলগা বল পেয়ে ফাঁকা জালে পাঠান হোর্তা। একেবারে শেষ দিকে সফরকারীদের একটি প্রচেষ্টা পোস্টে লাগায় ব্যবধান কমেনি। ১০ ম্যাচে ৩০ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপের শীর্ষে পর্তুগাল। আরেক ম্যাচে বসনিয়া ও হার্জেগোভিনাকে ২-১ গোলে হারানো স্লোভাকিয়া ২২ পয়েন্ট নিয়ে দুইয়ে আছে। লিখটেনস্টাইনের বিপক্ষে ১-০ গোলে জেতা লুক্সেমবার্গ ১৭ পয়েন্ট নিয়ে তিনে। চার নম্বরে আইসল্যান্ডের পয়েন্ট ১০, পাঁচ নম্বর বসনিয়ার ৯ পয়েন্ট। পর্তুগালের ঠিক উল্টো অভিজ্ঞতা হয়েছে লিখটেনস্টাইনের, দলটি হেরেছে ১০ ম্যাচের সবগুলো!