পরিপক্ব হলেই পাড়া যাবে থাকছে না আম পঞ্জিকা

24

চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলায় ম্যাংগো ক্যালেন্ডার (আম পঞ্জিকা) প্রণয়ন, নিরাপদ ও বিষমুক্ত আম উৎপাদন, বিপণন ও বাজারজাতকরণের লক্ষে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার সকালে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় সভাপতিত্ব করেন জেলা প্রশাসক এ কে এম গালিভ খাঁন।
সভাপতির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক এ কে এম গালিভ খাঁন বলেন, এখন আমের সময় চলে এসেছে। আমচাষিরা স্বতঃস্ফূর্তভাবে বলেছেন যে, জাতীয় শুদ্ধাচার কৌশল অবলম্বন করে যে সময়ে আম পাড়া যাবে অর্থাৎ আম পরিপক্ব হলেই তারা আম পাড়বেন। তাই এই বছরেও থাকছে না ম্যাংগো ক্যালেন্ডার।
জেলা প্রশাসক বলেন, স্বল্প খরচে পরিবহনের জন্য এ বছরেও থাকছে ম্যাংগো স্পেশাল ট্রেন এবং তা জুনের প্রথম সপ্তাহ থেকেই চালু হবে। তিনি বলেন, বিগত রাষ্ট্রপতি চাঁপাইনবাবগঞ্জের খিরসাপাত আম খেয়ে বলেছেন, এই জেলার আমের মিষ্টতা এবং এর যে উৎকর্ষতা তার প্রশংসা করেছেন। মহামান্য রাষ্ট্রপতি কৃষকসহ সকল পর্যায়ের জনগণকে ধন্যবাদ দিয়েছেন এবং নিরাপদ উপায়ে আমচাষ অব্যাহত রেখে বিশ্বের বুকে চাঁপাইনবাবগঞ্জের সুনাম ধরে রাখার আহ্বান জানিয়েছেন।
এ বছর যে ম্যাংগো ফেস্টিভ্যাল হওয়ার কথা সেটি অবশ্যই হবে বলে জানান জেলা প্রশাসক। তিনি বলেন, আমের সকল বিষয়ে জানার জন্য এই জেলায় আমের একটি সেল গঠন করা হবে। আম উৎপাদন এবং বাজারজাতকরণের সময় মোবাইল কোর্ট সার্বক্ষণিক নজরদারি করবেন, যাতে কোনো অসাধু ব্যবসায়ী আমে ক্ষতিকর কেমিকেল দিতে না পারে।
তিনি আরো বলেন, সারা জেলায় আমকেন্দ্রিক সকল বিষয়ের জন্য একটি সেল গঠন করা হবে। চাঁপাইনবাবগঞ্জের সবচেয়ে বড় বাজার কানসাটে একটি টাস্কফোর্স কমিটি গঠন করা হবে। কৃষকের যাতে সুবিধা বাড়ে, কৃষক যাতে করে ন্যায্যমূল্য পায়, সেক্ষেত্রে যা করা দরকার তার জন্য আমরা প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করব।
এ কে এম গালিভ খাঁন বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ঘোষিত স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্য নিয়ে আমরা এই বছর স্মার্ট ব্যবস্থায় আম বাজারজাতকরণে ক্যাশলেস মাধ্যমে বিপণন করার বিশেষ উদ্যোগ গ্রহণ করেছি।
সভা পরিচালনা করেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) আহমেদ মাহবুব-উল-ইসলাম। অন্যানোর মধ্যে বক্তব্য দেনÑ অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) পাপিয়া সুলতানা, চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. রওশন আলী, সাংবাদিক ডাবলু কুমার ঘোষ ও জাকির হোসেন, কৃষি উদ্যোক্তা ও চাঁপাইনবাবগঞ্জ কৃষি অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক মুঞ্জের আলম মানিকসহ আমচাষিরা।
এসময় উপস্থিত ছিলেন- সহকারী কমিশনার ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট তৌফিক আজিজ, জুবায়ের জাহাঙ্গীর, উপজেলা কৃষি অফিসার কানিজ তাসনোভা, আঞ্চলিক উদ্যানতত্ত্ব ও গবেষণা কেন্দ্রের বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ইউসুফ আলী, হর্টিকালচার সেন্টারের উপসহকারী পরিচালক ফাইজুর রহমানসহ জেলার আমচাষিবৃন্দ।
সভায় চাঁপাইনবাবগঞ্জে এ বছর আমের সম্ভাব্য উৎপাদন সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য তুলে ধরেন কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের অতিরিক্ত উপপরিচালক (উদ্যান) মাসুদ আহমেদ।