নিউ জিল্যান্ডের নয়া প্রধানমন্ত্রী হচ্ছেন বিল ইংলিশ

66

03-bill-englishনিউ জিল্যান্ডের ক্ষমতাসীন ন্যাশনাল পার্টি আনুষ্ঠানিকভাবে বিল ইংলিশকে নয়া প্রধানমন্ত্রী হিসেবে মনোনীত করেছে। বিবিসি বলছে, গেল সপ্তায় জন কি আকস্মিকভাবে দেশটির প্রধানমন্ত্রীর পদ থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দেওয়ার পর এই সিদ্ধান্ত এলো। উপ-প্রধানমন্ত্রী হিসেবে সোস্যাল হাউজিং মন্ত্রী পাউলা বেনেটের নাম ঘোষণা করা হয়েছে। বিল ইংলিশ দেশটির অর্থ ও উপ-প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্বপালন করেছেন। গতকাল সোমবার দিন শেষে ওয়েলিংটনে আনুষ্ঠানিকভাবে তার প্রধানমন্ত্রী হিসেবে অভিষেক হওয়ার কথা রয়েছে। ১৯৯০ সালে দেশটির পার্লামেন্টে যোগ দেন ইংলিশ। তিনি শিক্ষা, স্বাস্থ্য ও অর্থ ইত্যাদি গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। এরআগে নিউ জিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জন কি আট বছর দায়িত্ব পালন শেষে গেল সপ্তায় অপ্রত্যাশিতভাবে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দেন। নিউ জিল্যান্ড হেরাল্ড এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, কি একজন জনপ্রিয় নেতা। স্ত্রী ব্রোনার অনুরোধে তিনি ক্ষমতা থেকে সরে দাঁড়াচ্ছেন। ২০১৪ সালের সেপ্টেম্বরে অনুষ্ঠিত নির্বাচনে ন্যাশনাল পার্টির হয়ে তৃতীয়বারের মতো জয়ী কি জানান, ২০১৭ সালে অনুষ্ঠিতব্য নির্বাচনে তিনি প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন না। সাপ্তাহিক সাংবাদিক সম্মেলনে কি এই ঘোষণা দেন। পারিবারিক কারণে তিনি এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বলে জানিয়েছেন। ১২ ডিসেম্বর তিনি আনুষ্ঠানিকভাবে পদত্যাগ করার দিন নির্ধারণ করেন। ২০০৮ সালে লেবার পার্টির ৯ বছরের শাসনের অবসান ঘটিয়ে প্রধানমন্ত্রী হেলেন ক্লার্ককে সরিয়ে প্রধানমন্ত্রী হন জন কি।
২০০৮ সালের বৈশ্বিক অর্থনৈতিক সংকট জন কির নেতৃত্বে নিউ জিল্যান্ড ভালোভাবেই সামাল দিতে সক্ষম হয়। তার সময়ে দেশটির উল্লেখযোগ্য অর্থনৈতিক অগ্রগতিও হয়েছে।