দৈনিক গৌড় বাংলা

রবিবার, ২১শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৮ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১২ই শাওয়াল, ১৪৪৫ হিজরি

আজমাল হোসেন মামুন

চাঁপাইনবাবগঞ্জের ঐতিহ্যবাহী বিদ্যাপীঠ হরিমোহন সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের এসএসসি পরীক্ষার্থী ত্ব-সীন ইলাহীর প্রজেক্ট যুক্তরাষ্ট্রের মহাকাশ সংস্থা নাসা আয়োজিত বিশ্বের মর্যাদাসম্পন্ন উদ্ভাবনী প্রতিযোগিতা ‘নাসা কনরাড চ্যালেঞ্জে’ পুরো বিশ্বের মধ্যে এনার্জি অ্যান্ড এনভায়রনমেন্ট ক্যাটাগরিতে ১০ম স্থান অধিকার করেছে।
বাংলাদেশের তরুণ শিক্ষার্থীদের সমন্বিত দলটির নাম ‘নট এ বোরিং টিম’। এর অধিনায়ক ত্ব-সীন ইলাহী। দলের অন্য সদস্যরা হলেনÑ নাটোর সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয়ের এসএসসি পরীক্ষার্থী মাহদী বিন ফেরদৌস, রাজশাহী কলেজিয়েট স্কুলের দশম শ্রেণীর শিক্ষার্থী মো. নূর আহমেদ, নওগাঁর নজিপুর সরকারি মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের এসএসসি পরীক্ষার্থী নাদিম শাহরিয়ার অপূর্ব এবং নরসিংদীর লরেটো স্কুলের ‘এ’ লেভেলের শিক্ষার্থী মো. সঞ্জীব হোসেন।
দলের মেন্টর হিসেবে ছিলেন ঢাকা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (ডুয়েট) মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের স্নাতকোত্তরের শিক্ষার্থী মেহেদি হাসান।
এদিকে এ কৃতিত্বের জন্য হরিমোহন সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও শিক্ষকবৃন্দ ত্ব-সীন ইলাহিসহ অন্য শিক্ষার্থীদের অভিনন্দন জানিয়েছেন।
জানা গেছে, প্রতিযোগিতার আয়োজক ‘কনরাড ফাউন্ডেশন’ নামক একটি সংস্থা। ২০০৮ সাল থেকে এ প্রতিযোগিতা প্রতি বছর আয়োজন করা হয়। বর্তমানে নাসা, ডেল টেকনোলজিস এবং বিশ্বের অনেক নামীদামি টেকজায়ান্ট কোম্পানি এ প্রতিযোগিতার সাথে যুক্ত আছে।
এটি মূলত একটি উদ্ভাবনী এবং বিজনেস কনটেস্ট। এখানে একটি দলকে নির্দিষ্ট একটি বিষয়ের ওপর কাজ করতে হয়। কোনো একটি ফিল্ডের সমস্যা সমাধান করতে হয়। তারপর সেটার মডেল বানাতে হয়। সমাধানটা বাস্তব জীবনে কিভাবে কাজে লাগানো যায়, সে বিষয়ে বিস্তারিত তুলে ধরতে হয়। ১৩ বছর থেকে ১৮ বছর বয়সী সারা বিশ্বের যে কোনো শিক্ষার্থী এতে অংশগ্রহণ করতে পারে। ক্ষুদে উদ্যোক্তাদের বিশ্বসেরা মঞ্চ বলা হয় এটিকে। মোট ৪ ধাপে প্রতিযোগিতা সম্পন্ন হয়।
‘নট এ বোরিং টিম’ বাংলাদেশের ইতিহাসে দ্বিতীয়বারের মতো তৃতীয় স্টেজ পার করতে পেরেছে। এর আগে ২০১৫ সালে একটি দল প্রথমবারের মতো এ প্রতিযোগিতার ফাইনাল স্টেজে গিয়েছিল। এরপর নয় বছর পর এ দলটি দ্বিতীয়বারের মতো এই তৃতীয় স্টেজ পার করতে পেরেছে এবং বর্তমানে অল্টারনেটিভ ফাইনালিস্ট হিসেবে অবস্থান করছে।
তৃতীয় স্টেজে সারা বিশ্ব থেকে ২৫০-এর অধিক টিম প্রতিযোগিতা করে। যেখানে হরিমোহন সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্র ত্ব-সীন ইলাহির নেতৃত্বে গঠিত দলটি বিশ্বের মধ্যে এনার্জি অ্যান্ড এনভায়রনমেন্ট ক্যাটাগরিতে দশম হয়।
এবছর রেকর্ড ৩ হাজার ৪০০ জন শত শত দলের হয়ে প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করেন। এর মধ্যে পুরো বিশ্ব থেকে ৪টি ক্যাটাগরিতে ১০টি টিমকে বিশ্ব সেরা ঘোষণা করা হয়।
সবকিছু ঠিক থাকলে আগামী ২৩-২৬ এপ্রিল যুক্তরাষ্ট্রের মহাকাশনগরী খ্যাত টেক্সাসের হিউস্টন শহরে অবস্থিত নাসার ঐতিহাসিক জনসন স্পেস সেন্টার অ্যান্ড স্পেস সেন্টার হস্টনে অনুষ্ঠিতব্য কনরাড ইনোভেশন সামিট-২০২৪ এ সরাসরি অংশগ্রহণ করবে ত্ব-সীন ইলাহির দলটি।
ত্ব-সীন ইলাহীর মা প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মাসুমা আক্তার। বাবা ইসহাক আলী জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসের মনিটরিং অফিসার। ত্ব-সীন ২০১৮ সালে চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলায় সর্বোচ্চ নম্বর পেয়ে পিইসি পরীক্ষায় নবাবগঞ্জ মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে উত্তীর্ণ হয়।
ফিজিক্স অলিম্পিয়াড, গণিত অলিম্পিয়াড, রোবট অলিম্পিয়াড ইত্যাদিতে আঞ্চলিক ও জাতীয় পর্যায়ে পুরস্কারপ্রাপ্ত ত্ব-সীন ইলাহী বিভিন্ন জাতীয় ও আন্তর্জাতিক সার্টিফিকেট অর্জন করেছে। সৃজনশীল মেধা অন্বেষণ, জাতীয় শিশু পুরস্কারসহ আরো অসংখ্য পুরস্কার পেয়েছে সে। বর্তমানে সে ৭০টি সার্টিফিকেট অর্জন করেছে। লেখালেখি করা, বই পড়া কিংবা নতুন কিছু শেখা তার শখ।

About The Author

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *