নওগাঁর নিয়ামতপুরে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ব্যবস্থাপনা কমিটির মাসিক সভা

41

নওগাঁর নিয়ামতপুরে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ব্যবস্থাপনা কমিটির ৬ষ্ঠ মাসিক সভা ভার্চুয়ালি অনুষ্ঠিত হয়েছে। রবিবার বেলা ১১টায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সভাকক্ষে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে ভার্চুয়ালি সভাপতিত্ব করেন খাদ্যমন্ত্রী বীর মুক্তিযোদ্ধা সাধন চন্দ্র মজুমদার এমপি।
সভায় যুক্ত ছিলেন- উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ফরিদ আহমেদ, উপজেলা নির্বাহী অফিসার জয়া মারীয়া পেরেরা, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নাদিরা বেগম, থানার অফিসার ইনচার্জ হুমায়ন কবির, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা অফিসার ডা. মো. তোফাজ্জল হোসেন, উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা অফিসার সেলিম উদ্দিন, উপজেলা প্রকৌশলী নূরে আলম সিদ্দিকী, বীর মুক্তিযোদ্ধা সুভাষ কান্ত সরকার।
সভায় খাদ্যমন্ত্রী বীর মুক্তিযোদ্ধা সাধন চন্দ্র মজুমদার এমপি করোনা মহামারিতে উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগের কার্যক্রমে সন্তোষ প্রকাশ করে বলেন, আগামীতে আরো খারাপ অবস্থা হতে পারে, সেজন্য সবাইকে আরো গুরুত্ব সহকারে দায়িত্ব পালন করতে হবে। উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা অফিসারের উদেশে তিনি বলেন, আপনাকে হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা বিষয়ের দিকে কঠোর নজর রাখতে হবে। কোনো অনিয়ম যেন না হয়। মানুষ মানুষের জন্য, তাই মানুষকে সুস্থ রাখার জন্য, ভালো রাখার জন্য যা যা করণীয় তাই করতে হবে। সেবার মান যেন কোনোভাবেই নষ্ট না হয় সে দিকে খেয়াল রাখতে হবে।
উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্রে জানা যায়, উপজেলায় এ পর্যন্ত করোনার নমুনা সংগ্রহ হয়েছে ১ হাজার ৯৭৮ জনের, ফলাফল এসেছে ১ হাজার ৯০৯ জনের। ফলাফল পাওয়া যানি ৬৯ জনের। করোনা পজিটিভ ৪২৪ জন, সুস্থ হয়েছেন ৪০৩ জন। স্থানান্তর করা হয়েছে ৫৭ জনকে আর মৃত্যুবরণ করেছেন ১৮ জন। এ পর্যন্ত হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন ৯৮ জন। বর্তমানে করোনা রোগী রয়েছেন ৩ জন।
এছাড়া প্রথম ধাপে ভ্যাকসিনের জন্য রেজিস্ট্রেশন করেন ৮ হাজার ৮৭৫ জন। প্রথম ডোজ নিয়েছেন ৭ হাজার ৭৭৪ জন। দ্বিতীয় ডোজ নিয়েছেন ৫ হাজার ৩৭৭ জন। দ্বিতীয় ধাপে রেজিস্ট্রেশন করেছেন ৪ হাজার ২৪৫ জন। এদের মধ্যে প্রথম ডোজ নিয়েছেন ১ হাজার ১৪৬ জন।
নিয়ামতপুর উপজেলা ছাড়াও খাদ্যমন্ত্রী বীর মুক্তিযোদ্ধা সাধন চন্দ্র মজুমদার পোরশা ও সাপাহার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ব্যবস্থাপনা কমিটির মাসিক সভায়ও ভার্চুয়ালি সভাপতিত্ব করেন।