নওগাঁর নিয়ামতপুরে নিখোঁজের ৩ দিন পর খালে মিলল মরদেহ, আটক-১

20

নওগাঁর নিয়ামতপুরে নিখোঁজের ৩ দিন পর খালের কচুরিপানার ভিতর থেকে নাজমুল হোদা (২৬) নামে এক অটোভ্যান চালকের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে মাহবুর আলম (৩২) নামে এক যুবককে আটক করেছে পুলিশ।
নিয়ামতপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. মাইদুল ইসলাম জানান, নিয়ামতপুর উপজেলার চকচাপড়া গ্রামের মোহাম্মদ কাজীর ছেলে ভ্যানচালক নাজমুল হোদা গত ৪ ডিসেম্বর সন্ধ্যা হতে নিখোঁজ হয়। এ ব্যাপারে তার বাবা গত ৫ ডিসেম্বর নিয়ামতপুর থানায় একটি জিডি করেন। গত ৭ ডিসেম্বর বৃহস্পতিবার পাচড়া দিঘীপাড়া গ্রামের মৃত নূর মোহাম্মদের ছেলে ও নিখোঁজ নাজমুলের বন্ধু মাহাবুর আলম (৩২)কে গ্রেপ্তার করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হলে সে জানায়, নাজমুলকে সে আড়াই বছর পূর্বে বিভিন্ন সময়ে প্রায় ২৬ হাজার টাকা ধার দিয়েছিল। পরবর্তীতে বারবার সে তাকে তার পাওনা টাকা ফেরত দেবার জন্য বলে। কিন্তু নাজমুল টাকা ফেরত দিতে অস্বীকৃতি জানালে সে নাজমুলকে হত্যার পরিকল্পনা করে এবং মিষ্টির মধ্যে বিষাক্ত পাউডার মিশিয়ে নাজমুলকে খাইয়ে হত্যা করে। পরে কচুরিপানা ভর্তি নালার পানিতে ফেলে দিয়ে কচুরিপানার নিচে লুকিয়ে রাখে। তার স্বীকারোক্তি মোতাবেক গত বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৯টায় নাজমুলের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। মরদেহের সুরতহাল রিপোর্ট প্রস্তুত করে মংনা তদন্তের জন্য নওগাঁ সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়। এ ঘটনায় নিয়ামতপুর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে।