দুর্দান্ত জয় পেল বার্সা

2

ম্যাচের ৪৬ সেকেন্ডেই রবের্ত লেভানদোভস্কির গোল, বার্সেলোনার স্বপ্নের মতো শুরু। রিয়াল সোসিয়েদাদ জবাব দিতে বেশি সময় নেয়নি। এরপর যেন নিজেদের হারিয়ে খুঁজছিল কাতালান দলটি। দ্বিতীয়ার্ধে আনসু ফাতি বদলি নামতেই ভোজবাজির মতো পাল্টে গেল চিত্র। তরুণ ফরোয়ার্ড গোল করলেন ও করালেন। অসাধারণ এক জয়ের উচ্ছ্বাসে ভাসল শাভি এরনান্দেসের দল। লা লিগার এবারের আসরে নিজেদের প্রথম জয় পেল বার্সেলোনা। সান সেবাস্তিয়ানে রোববার রাতে তারা জিতল ৪-১ গোলে। নিজের ৩৪তম জন্মদিনের উপলক্ষ জোড়া গোল করে রাঙান লেভানদোভস্কি। একটি করে গোল করেন ফাতি ও উসমান দেম্বেলে। বার্সেলোনা নিজেদের প্রথম ম্যাচে কাম্প নউয়ে রায়ো ভাইয়েকানোর সঙ্গে গোলশূন্য ড্র করেছিল।

সোসিয়েদাদের মাঠে দারুণ এক পাল্টা-আক্রমণে প্রথম মিনিটে এগিয়ে যায় বার্সেলোনা। নিজেদের অর্ধ থেকে আলেক্স বাল্দে বাঁ দিক দিয়ে বল নিয়ে এগিয়ে বক্সে ঢুকে পাস দেন লেভানদোভস্কিকে। ছয় গজ বক্সের মুখে প্রথম স্পর্শে বাঁ পায়ের শটে ঠিকানা খুঁজে নেন পোলিশ তারকা। প্রতিযোগিতামূলক ফুটবলে বার্সেলোনার হয়ে সাবেক বায়ার্ন মিউনিখ ফরোয়ার্ডের প্রথম গোল এটি। এতে লা লিগায় বার্সেলোনার ৩৬০ মিনিটের গোল-খরাও কাটল। ২০০৩ সালের সেপ্টেম্বর-অক্টোবরের পর লিগে যা তাদের সবচেয়ে দীর্ঘ গোল-খরা। সেবার ৩২৬ মিনিট গোলহীন কেটেছিল তাদের। বার্সেলোনার এগিয়ে যাওয়ার আনন্দ উবে যায় দ্রুতই। ষষ্ঠ মিনিটে ফ্রেংকি ডি ইয়ং মাঝমাঠে বলের নিয়ন্ত্রণ হারালে পেয়ে যায় সোসিয়েদাদ। সতীর্থের পাস ধরে বক্সে ঢুকে পড়েন আলেক্সান্দার ইসাক। পেছন থেকে ছুটে গিয়ে শেষ মুহূর্তে সুইডিশ ফরোয়ার্ডকে চ্যালেঞ্জ জানান এরিক গার্সিয়া। বল এই স্প্যানিশ ডিফেন্ডারের পায়ে লেগে এগিয়ে আসা গোলরক্ষকের মাথার ওপর দিয়ে জালে জড়ায়।

২৫তম মিনিটে ভালো একটি সুযোগ পান বার্সেলোনার ফেররান তরেস। দেম্বেলের পাসে ২৫ গজ দূর থেকে তরুণ স্প্যানিশ ফরোয়ার্ডের শট অল্পের জন্য লক্ষ্যে থাকেনি। একটু পর বক্সের ভেতর থেকে সোসিয়েদাদের মিকেল মেরিনোর শট ফিরিয়ে দেন গোলরক্ষক মার্ক-আন্ড্রে টের স্টেগেন। বিরতির আগে দুর্দান্ত এক সেভে আবারও বার্সেলোনাকে বাঁচান এই জার্মান গোলরক্ষক। ১০ গজ দূর থেকে দাভিদ সিলভার নিচু শট যাচ্ছিল জালের দিকে, বাঁ দিকে ঝাঁপিয়ে এক হাতে কর্নারের বিনিময়ে রক্ষা করেন টের স্টেগেন। প্রথমার্ধের যোগ করা সময়ে ডি ইয়ংয়ের ক্রসে লেভানদোভস্কির হেড সহজেই ঠেকান সোসিয়েদাদের গোলরক্ষক। ৫৩তম মিনিটে বারিস মেন্দেস বার্সেলোনার জালে বল পাঠালেও অফসাইডের কারণে গোল মেলেনি।

একটু পর নিজেদের ভুল বিপদে পড়তে বসেছিল সোসিয়েদাদ। আলগা বল পেয়ে যান গাভি। তরুণ স্প্যানিশ মিডফিল্ডারের শট আটকে দেন এক ডিফেন্ডার। ৬৪তম মিনিটে একসঙ্গে দুটি পরিবর্তন আনেন বার্সেলোনা কোচ শাভি। তরেসের জায়গায় ফাতি ও বাল্দের বদলি হিসেবে রাফিনিয়াকে মাঠে নামান তিনি। তাতে মুহূর্তেই বদলে যায় দলের খেলা। দুই মিনিটের মধ্যে দুই গোল করে এগিয়ে যায় তারা। দুটিতেই অবদান ফাতির। ৬৬তম মিনিটে ফাতির ব্যাকহিল ফ্লিকে বল পেয়ে যান দেম্বেলে। বক্সে ঢুকে ফরাসি ফরোয়ার্ডের বাঁ পায়ের কোণাকুণি শট দূরের পোস্ট দিয়ে জালে জড়ায়। একটু পর ডি ইয়ংয়ের পাস বক্সে পান ফাতি।

তার বাড়ানো বলে আট গজ দূর থেকে নিজের দ্বিতীয় গোল পূর্ণ করেন লেভানদোভস্কি। ৭৯তম মিনিটে জালের দেখা পান ফাতি। বক্সের সামনে থেকে লেভানদোভস্কির ফ্লিক প্রতিপক্ষের একজনের পায়ে লেগে ফাঁকায় পেয়ে যান ১৯ বছর বয়সী ফরোয়ার্ড। বাকিটা সহজেই সারেন তিনি। বাকি সময়ে আর উল্লেখযোগ্য সুযোগ মেলেনি। ২ ম্যাচে একটি করে জয় ও ড্রয়ে ৪ পয়েন্ট নিয়ে পাঁচ নম্বরে আছে বার্সেলোনা। প্রথম হারের স্বাদ পাওয়া রিয়াল সোসিয়েদাদ ৩ পয়েন্ট নিয়ে ১০ নম্বরে আছে। ৬ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে ভিয়ারিয়াল। তাদের সমান নিয়ে গোল পার্থক্যে পরের তিনটি স্থানে রিয়াল মাদ্রিদ, রিয়াল বেতিস ও ওসাসুনা।