দুই ফেরির মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ১ আহত ১০

8

পদ্মা নদীর শিমুলিয়া-সাত্তার মাদবর মঙ্গলমাঝি ঘাট নৌরুটের জাজিরার টার্নিং পয়েন্টে তীব্র ¯্রােতের কারণে চলন্ত দুই ফেরির মুখোমুখি সংঘর্ষে ১ জন নিহত ও অন্তত ১০ জন আহত হয়েছে।
রবিবার ভোর পৌনে ৪টার দিকে ফেরি বেগম রোকেয়া ও সুফিয়া কামাল ফেরির মুখোমুখি সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। দুর্ঘটনায় সুফিয়া কামাল ফেরিতে থাকা গাড়িতে চাপা পরে পিকআপচালক খোকন শিকদার (৪০) নিহত হন। নিহত খোকন ঝালকাঠি জেলার কাঠালিয়া চিংবাখালি এলাকার হারুন শিকদারের ছেলে।
বিআইডব্লিউটিসি শিমুলিয়াঘাটের ব্যবস্থাপক (বাণিজ্য) মো. জামাল হোসেন ও বিআইডব্লিউটিএ সাত্তার মাদবর মঙ্গলমাঝি ঘাটের শুল্ক আদায়কারী তৌফিকুল ইসলাম জানান, ফেরি সুফিয়া কামাল ৩০টি যানবাহন নিয়ে শরীয়তপুরের মাঝিকান্দি থেকে শিমুলিয়ার পথে ও বেগম রোকেয়া ফেরিটি ৩৪টি যানবাহন ও অর্ধশতাধিক যাত্রী নিয়ে শিমুলিয়া থেকে মাঝিকান্দি যাচ্ছিল। পদ্মার তীব্র ¯্রােতের কারণে জাজিরার টার্নিং পয়েন্টে পৌঁছলে ফেরি দুটির মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এসময় ফেরি সুফিয়া কামাল ফেরিতে থাকা একটি গাড়িতে চাপা পড়ে ঘটনাস্থলেই পিকআপচালক খোকনের মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় দুই ফেরির অন্তত ১০ জন আহত হয়।
এছাড়াও ফেরিতে থাকা ১০/১২টি গাড়ি ক্ষতি হয়। পরবর্তীতে সুফিয়া কামাল শিমুলিয়া ঘাটে ও বেগম রোকেয়া মাজিকান্দি ঘাটে পৌঁছে নোঙর করেছে। অন্যান্য যাত্রীরা নিরাপদ রয়েছে। আহতদেরকে জাজিরা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও মুন্সিগঞ্জ জেলা হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।
মাওয়া নৌপুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ আবু তাহের জানান, ফেরি দুর্ঘটনায় নিহত পিকআপচালক খোকন সিকদারের মরদেহ মাওয়া নৌপুলিশ ক্যাম্পে রয়েছে। আইনি প্রক্রিয়া শেষে মরদেহ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হবে। তবে কোনো যাত্রী নিখোঁজের খবর পাওয়া যায়নি।
দুর্ঘটনাকে কেন্দ্র করে প্রায় ৫ ঘণ্টা ফেরি চলাচল বন্ধ থাকার পরে সকাল ১০টা থেকে ফেরি চলাচল স্বাভাবিক হয়েছে।