দীর্ঘ এক বছর পর স্বাগতা

147

06দীর্ঘ এক বছর পর অভিনয়ে ফিরলেন দর্শকপ্রিয় অভিনেত্রী জিনাত সানু স্বাগতা। বর্তমানে তিনি ধারাবাহিক, টেলিছবি ও খ- নাটকে নিয়মিত শুটিং করছেন। তবে আগের চেয়ে কাজ কিছুটা কমিয়ে দিয়েছেন স্বাগতা। কারণ তিনি এখন শুধুমাত্র মানসম্মত নাটকেই কাজ করতে আগ্রহী। এ প্রসঙ্গে স্বাগতা বলেন, ‘বিয়ের পর দীর্ঘদিন অভিনয়ে অনিয়মিত ছিলাম। কারণ ওই সময়ে নতুন জীবনটা একটু গুছিয়ে নিয়েছি। এ ছাড়া আমি মনে করি, সংসার ও ক্যারিয়ার দুটিকে ব্যালেন্স করে চলা বেশ শক্ত বিষয়। তাই আমাকে এখন অনেক হিসেব-নিকেষ করেই চলতে হচ্ছে। এখন থেকে বেছে বেছে দক্ষ পরিচালক ও মানসম্পন্ন গল্পের নাটকে কাজ করতে চাই।’ সম্প্রতি চিত্রনায়ক স¤্রাটের ‘পরিণাম’ শীর্ষক একটি টেলিছবির শুটিং করছেন স্বাগতা। এ টেলিছবিতে শারীরিক প্রতিবন্ধী স্ত্রীর চরিত্রে রূপদান করেছেন তিনি। রূপে-গুণে পরিপূর্ণ থাকার পরেও একজন প্যারালাইস্ড স্ত্রী পরিবারের সবার কাছে কতটা অবহেলার পাত্র হয় সেটিই এ টেলিছবিতে তুলে ধরা হয়েছে। এ ছাড়া সজলের বিপরীতেও স্বাগতা ‘ফালতু’ শীর্ষক একটি খ- নাটকের কাজ শেষ করেছেন। এটি পরিচালনা করেছেন নজরুল কোরায়শি। এদিকে, এশিয়ান টিভিতে স্বাগতা অভিনীত ‘অদ্বিতীয়া’ শীর্ষক একটি ধারাবাহিক নিয়মিত প্রচার হচ্ছে। এই ধারাবাহিকটির প্রধান চরিত্রে অভিনয় করছেন স্বাগতা। আসছে নতুন বছরেই আরই কিছু ধারাবাহিকের কাজ শুরু করবেন বলে জানান তিনি। অভিনয়ের পাশাপাশি স্বাগতা বর্তমানে উপস্থাপনাও ব্যস্ত সময় পার করছেন। বাংলাদেশ বেতারে তার উপস্থাপনায় ‘তারার সাথে কিছুক্ষণ’ শীর্ষক একটি অনুষ্ঠান নিয়মিত প্রচার হচ্ছে। এখানে স্ব-স্ব-ক্ষেত্রে সফল ব্যক্তিদের আমন্ত্রণ জানানো হয়। এ ছাড়া বাংলাভিশনে অচিরেই স্বাগতার উপস্থাপনায় ‘সোনালি দিনের রূপালী গল্প’ শীর্ষক চলচ্চিত্র বিষয়ক একটি অনুষ্ঠান প্রচার শুরু হবে বলে স্বাগতা জানান।  অন্যদিকে, ছোটপর্দার বাইরে বড় পর্দায়ও একসময় সরব ছিলেন স্বাগতা। প্রয়াত নায়ক মান্নার বিপরীতে ‘শত্রু শত্রু খেলা’ ছবিতে প্রথম নায়িকা চরিত্রে অভিনয় করেন তিনি। ওই সময় ছবিটি বাণিজ্যিকভাবেও দারুণ ব্যবসা সফলতা লাভ করে। কিন্তু গত কয়েক বছরে নতুন কোনো ছবিতে স্বাগতাকে দেখা যায়নি। এ প্রসঙ্গে স্বাগতা বলেন, ‘বর্তমানে চিত্রজগতে অস্থির অবস্থা বিরাজ করছে। তাই চলচ্চিত্রের প্রতি অনীহা তৈরি হয়েছে। শুধু তাই নয়, প্রতিদিনই নিত্যনতুন চলচ্চিত্রের প্রস্তাব পাচ্ছি। তবে গল্প ও চরিত্র পছন্দ না হওয়ায় কাজ করতে পারছি না।