দিল্লীতে পৌঁছেছেন চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী

5

দ্বিপাক্ষিক বৈঠকের জন্য চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়াং ই ভারতের দিল্লীতে পৌঁছেছেন আজ। তার এই সফর নিয়ে শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত সংশয় ছিলো, এ ছাড়া চীনের এই মন্ত্রীর দিল্লীতে অবতরণ করার পরেও সফরের কোনও আনুষ্ঠানিক বার্তা প্রদান করা হয়নি। এনডিটিভি জানায়, লাদাখে অচলাবস্থা শুরু হওয়ার পর বিগত দুই বছরেরও বেশি সময়ের মধ্যে এটাই প্রথম উচ্চপর্যায়ের চীনা কর্মকর্তা ভারতীয় সফর। ওয়াং ই গতকাল শুক্রবার ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর এবং জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত ডোভালের সঙ্গে দেখা করবেন বলে আশা করা হচ্ছে। সংবাদ সংস্থা প্রেস ট্রাস্ট অফ ইন্ডিয়া জানিয়েছে, ওয়াং ই’র সফরের উদ্দেশ্য হল শারীরিক যোগাযোগ পুনরায় শুরু করা এবং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে এই বছরের শেষের দিকে বেইজিং অনুষ্ঠেয় ব্রিকস বৈঠকের জন্য আমন্ত্রণ জানানো। লাদাখে চীনা অনুপ্রবেশ বৃদ্ধি পাওয়া এবং গালওয়ান উপত্যকায় সংঘর্ষের ফলে ২০ জন ভারতীয় এবং বেশ কয়েকটি চীনা সৈন্য মারা যাওয়ার ঘটনায় ভারত-চীন সম্পর্কের অবনতি ঘটে।

এর মধ্যে পররাষ্ট্রমন্ত্রী জয়শঙ্কর উত্তেজনা প্রশমিত করতে মস্কো এবং দুশানবেতে ওয়াং ইয়ের সাথে কয়েক দফা আলোচনা করেছেন। ২০২০ সালের সেপ্টেম্বরে, তারা সাংহাই কো-অপারেশন অর্গানাইজেশনের একটি কনক্লেভের সাইডলাইনে মস্কোতে এ বিষয়ে আলোচনা করেছিল তখন তারা পূর্ব লাদাখে সীমান্তের সমস্যা সমাধানে একটি পাঁচ-দফা চুক্তিতে সম্মত হয়েছিল। গত বছরের জুলাইয়ে তাজিকের রাজধানী দুশানবেতে আরেকটি এসসিও বৈঠকের ফাঁকে তারা দ্বিপাক্ষিক বৈঠকও করেছিল। সেপ্টেম্বরে দুশানবেতে আরেকটি বৈঠক হয়। পাকিস্তানে একটি অনুষ্ঠানে কাশ্মীর নিয়ে তার বক্তব্য নিয়ে নতুন বিতর্কের মধ্যেই চীনের মন্ত্রীর এই সফর।