দিল্লি ও উত্তর প্রদেশে তাপমাত্রা ৪৯ ডিগ্রি

8

ভারতের উত্তরাঞ্চলে ব্যাপক তাপপ্রবাহ চলছে। গত রোববার দিল্লি ও উত্তর প্রদেশে ৪৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করেছে আবহাওয়া দপ্তর। অন্যদিকে কেরালা জুড়ে ভারী বৃষ্টিপাতের সতর্কতা জারি করা হয়েছে এবং পাঁচটি জেলায় লাল সতর্কতা দিয়েছে আবহাওয়া দপ্তর। দিল্লির সফদরজং আবহাওয়া মান নির্ণয়কেন্দ্রে গতকাল ৪৫.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে। তবে দিল্লির মুঙ্গেশপুর ৪৯.২ এবং নাজাফগড়ে ৪৯.১ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে।

এই মওসুমে সফদরজংয়ে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড হয়েছে। অন্যদিকে উত্তর প্রদেশের বান্দা জেলার বুন্দলখন্দে দিনের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৪৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস। মে মাসে সেখানে রেকর্ড করা সর্বোচ্চ তাপমাত্রা এটি। এর আগে ১৯৯৪ সালের ৩১ মে সেখানে ৪৮.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছিল। রাজস্থানের চুরু এবং পিলানিতে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৪৭.৯ এবং ৪৭.৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়েছে। আবহাওয়া দপ্তর বলেছে, স্বাভাবিক তাপমাত্রার চেয়ে ৫.১ ডিগ্রি কিংবা তারও বেশি রয়েছে এখন।

সাধারণভাবে যদি সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৪০ ডিগ্রির বেশি হয় এবং স্বাভাবিকের থেকে তা ৪.৫ ডিগ্রি বেশি থাকে, তাহলে সেখানে তাপপ্রবাহ হিসেবে ধরা হয়। আবহাওয়া বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ১৯৫১ সালের পর থেকে এ বছর দ্বিতীয় উষ্ণতম এপ্রিল। যেখানে মাসিক গড় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৪০.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এপ্রিলের শেষে হওয়া তাপপ্রবাহে দিল্লির বিভিন্ন অংশের তাপমাত্রা ৪৬ ও ৪৭ ডিগ্রিতে পৌঁছে গিয়েছিল। যেখানে দিল্লিতে এপ্রিলের গড় বৃষ্টিপাত ১২.২ মিলি, সেখানে এবার বৃষ্টি হয়েছে ০.৩ মিলি। আর মার্চে যেখানে ১৫.৯ মিলি, সেখানে এবার বৃষ্টিই হয়নি।
সূত্র: এনডিটিভি।