দর্শক মাতাচ্ছে ‘দই’

4

‘ভ্যালেন্টাইন ডে’ উপলক্ষে ‘দই’ বানিয়েছেন সময়ের আলোচিত নির্মাতা কাজল আরেফিন অমি। সোমবার দুপুরে ধ্রুব টিভির ইউটিউবে প্রকাশের পর থেকেই দর্শক মেতেছে এ নাটকে! ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই অমি পরিচালিত তারকাবহুল এ নাটকটি ১৩ লাখের বেশি দর্শক দেখেছে।
মিনিটে মিনিটে বাড়ছে ভিউ, আর প্রশংসায় ভাসানো সব মন্তব্য। যা মন ছুঁয়ে যাচ্ছে ‘দই’ টিমের। তবে কাজটি করতে গিয়ে বারবার ঝামেলা পোহাতে হয়েছে পরিচালক অমির। তিনি জানান, বৃষ্টি ও লকডাউনের কারণে তাকে ৪ বার শুটিং বাতিল করতে হয়েছে। টাঙ্গাইলে ৬৫ জনের ইউনিট নিয়ে শুটিং করতে গিয়েও সেখান থেকে ফিরে আসতে হয়েছে তাদের। এর আগে শহুরে বিভিন্ন ধাঁচের গল্প পর্দায় এনে মুন্সিয়ানা দেখিয়েছেন অমি। ‘দই’ এর মাধ্যমে প্রথম গ্রামীণ প্রেক্ষাপটের নাটক বানিয়েছেন ‘ব্যাচেলর পয়েন্ট’ খ্যাত এই নির্মাতা। অমি বলেন, চেয়েছি সহজ সরল একটি গল্প বলতে। যেখানে গ্রাম শহর দুই জায়গার দর্শক সহজেই গল্পটা পছন্দ করতে পারে। প্রচারের পর তাই হয়েছে। আমার টিমের প্রত্যেকটা সদস্য বাড়তি সাপোর্ট দিয়েছেন। তবে ‘দই’ এর শুটিং করতে গিয়ে ৪ বার শুটিং বাতিল হয়েছে। সবচেয়ে বড় প্রতিবন্ধকতা ছিলো বৃষ্টি ও লকডাউন। শুটিংয়ের দু-একদিন আগে তিনবার সব শিল্পীদের সিডিউল বাতিল করতে হয়েছে। চতুর্থবার শুটিং এ গেলে দিনভর বৃষ্টি হয়। শুটিংয়ের ওই এলাকায় বৃষ্টি এলেই পানি জমে যায়। পরদিন কোনোভাবে শুটিং করা সম্ভব হয়নি। মজার ঘটনা হচ্ছে, বিয়ে বাড়ির অংশের শুটিং করেছি যে বাড়িতে, শুটিংয়ের আগে সেই বাড়ির মালিক জানায় তার বিয়ে। এজন্য তখনও একবার শুটিং ক্যানসেল করতে হয়েছে। অমি বলেন, বৃষ্টির জন্য আমি ছাড় দিয়ে শুটিং করতে চাইনি। একমাস পর প্রত্যেক আর্টিস্টের সিডিউল মিলিয়ে শুটিং করেছি। সবাই আন্তরিকভাবে সহযোগিতা করেছেন। বড় ইউনিট নিয়ে শুটিং থেকে ফিরে আসা একটা বাড়তি খরচের ব্যাপার। এতগুলো কাজ করেছি কিন্তু এর আগে কখনও এত ঝামেলা পোহাতে হয়নি। বারবার শুটিং বাতিল করায় মানসিকভাবে প্রভাব পড়তে পারতো। কিন্তু অমি জানান, তা হয়নি। এর কারণ হচ্ছে, তার আর্টিস্টরা বিশ্বাস রেখেছিলেন। পারস্পরিক শ্রদ্ধার জায়গা অটুট ছিল। অমি বলেন, প্রযোজক ধ্রুব দাদা (ধ্রুব গুহ) পূর্ণ বিশ্বাস রেখেছিলেন। বলেছিলেন, প্রজেক্টটা আপনি যেভাবে ভালো মনে করেন সেভাবে করেন। তার এই কথাটা আমাকে বেশি সাপোর্ট দিয়েছে। ফ্রুটিকার সৌজন্যে মোশন রকের ব্যানারে নির্মিত ‘দই’ এর বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করছেন মিশু সাব্বির, মারজুক রাসেল, চাষী আলম, পলাশ, শরাফ আহমেদ জীবন, শিমুল, তামিম মৃধা, পাভেল, বাচ্চু, সুমন পাটোয়ারী। আরও অভিনয় করছেন সিফাত শাহরিন, লামিমা। নতুন করে যুক্ত হয়েছেন পারসা ইভানা।