থাইল্যান্ডে ডে-কেয়ার সেন্টারে বন্দুকধারীর হামলায় নিহত ৩৪

1

থাইল্যান্ডের উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় একটি প্রদেশে একটি শিশু ডে-কেয়ার সেন্টারে গতকাল বৃহস্পতিবার সাবেক পুলিশ কর্মকর্তার বন্দুক হামলায় অন্তত ৩৪ জন নিহত হয়েছেন বলে জানিয়েছেন পুলিশের একজন মুখপাত্র। নিহতদের মধ্যে ২২ জন শিশুর পাশাপাশি প্রাপ্তবয়স্করাও রয়েছে। এছাড়াও হামলায় আহত হয়েছেন আরও অনেকে। থাই পুলিশ এক বিবৃতিতে বলেছে, বন্দুকধারী নাম পান্যা খামরাব, যিনি থাই পুলিশের একজন লেফটেন্যান্ট হিসেবে কর্মরত ছিলেন। তাকে এখনও গ্রেপ্তার করা যায়নি।

তার খোজেঁ তল্লাশি অভিযান চালালাচ্ছে পুলিশ। পুলিশ আরও জানিয়েছে, গুলি চালানোর পাশাপাশি শিশু ও প্রাপ্তবয়স্কদের কুপিয়েছেন খামরাব। তবে কী কারণে এ হামলা চালান তিনি, তা এখনও স্পষ্ট নয়। একজন সরকারী মুখপাত্র বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী সমস্ত সংস্থাকে ব্যবস্থা নিতে এবং অপরাধীকে গ্রেপ্তার করার জন্য নির্দেশ দিয়েছেন। এই অঞ্চলের অন্যান্য দেশের তুলনায় থাইল্যান্ডে বন্দুকের মালিকানার হার বেশি কিন্তু সরকারী পরিসংখ্যানে অবৈধ অস্ত্র তেমন নেই। দেশটিতে বন্দুক হামলার ঘটনা বিরল তবে ২০২০ সালে, সম্পত্তির চুক্তিতে ক্ষুব্ধ একজন সৈনিক চারটি স্থানে বন্দুক হামলা চালালে কমপক্ষে ২৯ জন নিহত এবং ৫৭ জন আহত হয়েছিল। সূত্র: রয়টার্স