দৈনিক গৌড় বাংলা

মঙ্গলবার, ২৮শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১৪ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২০শে জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি

তুরস্কের ভয়াবহ ঘটনার কথা জানালেন ফারিণ

ঈদে কড়া শিডিউলে কাজ করেছেন জনপ্রিয় অভিনেত্রী তাসনিয়া ফারিণ। পেয়েছেন আলোচিত সব পুরস্কার। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য ছিল কলকাতায় ফিল্মফেয়ার পুরস্কার। পুরস্কার নিয়েই তিনি উড়াল দেন স্বামীর কাছে। সেখানেই ঘটে যায় ভয়াবহ ঘটনা। তাসনিয়া ফারিণ এবার দেশে ঈদ উদযাপন করেননি। গিয়েছিলেন স্বামী রেজওয়ানের সঙ্গে ঈদ উদযাপন করবেন বলে। দুজনে এবার তুরস্কে ঈদ উদযাপন করেছেন। এ বিষয়ে অভিনেত্রী বলেন, ‘ঈদ এবং প্রেমের সম্পর্কের ৯ বছর পূর্তি উপলক্ষে তুরস্ককে বেছে নিয়েছি আমরা। আমি ৫ এপ্রিল এখানে এসেছি। একই দিন যুক্তরাজ্য থেকে রেজওয়ান এসেছে। এত সুন্দর একটা দেশ! ঈদের নামাজ এখানে আদায় করে ঘুরাঘুরি করেই ঈদ উদযাপন করি। ফারিণ আরও বলেন, ‘ঈদের দিন জাহাজে ভ্রমণ করেছি।

১৪০০ সালে চালু হওয়া হাম্মামের তুর্কি বার্থেও গিয়েছিলাম। কতশত বছর আগের শুরু হওয়া হাম্মামের তুর্কি বার্থ। এখানে নাকি রাজা-বাদশাহরা একসময় গোসল করতেন। খুবই ঐতিহাসিক একটি জায়গায়। মিস করিনি।’ আনতালিয়া, কাপাডোসিয়া ঘুরে এখন ইস্তাম্বুলে অবস্থান করছেন এই দম্পতি। তবে সবকিছু ঠিকঠাক থাকলেও ভয়াবহ ঘটনার কথা বললেন ফারিণ। তিনি জানালেন, ‘তুরস্কের আনতালিয়াতে গিয়ে ‘কেবল কারে’ উঠেছিলেন দম্পতি, চলে আসার পর জানতে পারেন, সেই কেবল কারটি ছিঁড়ে একজন মারা গেছেন। কয়েকজন আহতও হয়েছেন, বহু পর্যটক আটকে ছিলেন। তার ভাষায়, ‘ওই ঘটনা মনে পড়লে এখনো রীতিমতো ভয় লাগছে। যেটিতে চড়লাম, দুই দিন পর সেটি ছিঁড়ে পড়ে যায়, কী ভয়ংকর! একজন মারা গিয়েছেন, কয়েকজন আহত হয়েছেন।

১৪৮ জন ট্যুরিস্ট নাকি আটকে ছিলেন। পরে হেলিকপ্টারে করে তাদের উদ্ধার করা হয়েছে। খবরটি জানার পর আঁতকে উঠেছিলাম আমি। কী একটা ভয়ংকর অবস্থা! দুই দিন আগেও আমি ওই কেব্ল কারে ছিলাম। খবর দেখে চিন্তায় ঢাকা থেকে মা ফোন করেছিলেন আমাকে।’ এবার ঈদে অনেকগুলো নাটকে কাজ করেছেন ফারিণ। ঈদে জনপ্রিয় ম্যাগাজিন অনুষ্ঠান ইত্যাদিতে গান পরিবেশন করেন জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী তাহসান ও ফারিণ। ভীষণ দর্শকপ্রিয়তা পেয়েছে গানটি।

About The Author

This will close in 0 seconds