তুরস্কের বন্দর ছাড়ল সেই রুশ জাহাজ

7

রাশিয়ার পতাকাবাহী পণ্যবাহী জাহাজ ঝিবেক ঝোলি তুরস্কের কারাসু বন্দর ছেড়েছে। রিফিনিটিভ জাহাজ ট্র্যাকিংয়ের তথ্যের বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা রয়টার্স গতকাল বৃহস্পতিবার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে। স্থানীয় সময় গত বুধবার গভীর রাতে ঝিবেক ঝোলি কারাসু বন্দর ছাড়ে বলে রিফিনিটিভ জাহাজ ট্র্যাকিংয়ের তথ্যে দেখা গেছে।গত রোববার ইউক্রেন থেকে শস্য বোঝাই করে নিয়ে যাওয়া একটি রাশিয়ার পতাকাবাহী পণ্যবাহী জাহাজ আটকের দাবি করেছিল তুরস্ক। যদিও বুধবার তুরস্কের ওই জাহাজ আটকের দাবি নাকচ করে দেয় রাশিয়া।এ বিষয়ে রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছিল, রাশিয়ার পতাকাবাহী পণ্যবাহী জাহাজ ঝিবেক ঝোলিকে তুরস্কের কারাসু বন্দরে চুরি করা ইউক্রেনীয় শস্য বহনের সন্দেহে আটক করা হয়েছে, এমন খবর মিথ্যা।পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র আলেক্সি জাইতসেভ বলেছিলেন, ইউক্রেনীয় কর্তৃপক্ষ বলেছে ঝিবেক ঝোলি বের্দিয়ানস্কের দখল করা বন্দর থেকে শস্য বহন করছে।

কিন্তু জাহাজটি ‘সঠিক নিয়ম মেনেই’ চলছে। এর আগে শুক্রবার রাশিয়ার দখল করা বার্দিয়ানস্ক বন্দর থেকে ইউক্রেনীয় শস্য বহনকারী রাশিয়ার পতাকাবাহী পণ্যবাহী জাহাজ ঝিবেক ঝোলিকে আটক করার জন্য ইউক্রেন তুরস্ককে অনুরোধ করেছিল বলে ইউক্রেনের এক কর্মকর্তা জানিয়েছিলেন। এ ছাড়া রয়টার্স এ-সংক্রান্ত নথিও দেখেছে।ইউক্রেনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তা দেশটির নৌ প্রশাসনের কাছ থেকে পাওয়া তথ্যের বরাত দিয়ে জানান, ওই রুশ জাহাজ প্রায় সাড়ে চার হাজার টন শস্যের প্রথম প্রথম চালন নিয়ে যাচ্ছিল। ওই শস্য ইউক্রেনের বলে দাবি করেছিলেন তিনি। এর আগেও রাশিয়ার বিরুদ্ধে ইউক্রেন থেকে শস্য চুরির অভিযোগ এনেছিল কিয়েভ।