তিনটি ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়ে বছর শেষ করল উত্তর কোরিয়া

2

সিউলের সামরিক বাহিনী জানিয়েছে, কোরীয় উপদ্বীপের পূর্ব দিকে সাগরে পিয়ংইয়ং তিনটি স্বল্প পাল্লার ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়েছে। উত্তর কোরিয়া তাদের সবচেয়ে অত্যাধুনিক আন্ত:মহাদেশীয় ব্যালাস্টিক ক্ষেপণাস্ত্রসহ নজিরবিহীনভাবে একের পর এক বিভিন্ন অস্ত্রের পরীক্ষা চালানোয় এ বছর কোরীয় উপদ্বীপে সামরিক উত্তেজনা চরম বৃদ্ধি পেয়েছে। গত মাসে আন্ত:মহাদেশীয় ওই ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা চালায় পিয়ংইয়ং। দক্ষিণ কোরিয়ার জয়েন্ট চিফস অব স্টাফ বলেন, গতকাল শনিবার স্থানীয় সময় সকাল ৮টার দিকে রাজধানী পিয়ংইয়ংয়ের দক্ষিণে অবস্থিত নর্থ হোয়াংহে প্রদেশ থেকে উত্তর কোরিয়া স্বল্প পাল্লার তিনটি ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়ে। গত সোমবার দক্ষিণ কোরিয়ার আকাশসীমায় উত্তর কোরিয়ার ড্রোন অনুপ্রবেশ করায় দেশটির সামরিক বাহিনী তাৎক্ষণিকভাবে যুদ্ধবিমান মোতায়েনের প্রস্তুতি নেয় এবং হেলিকপ্টার অভিযান চালায়। কিন্তু পাঁচ ঘণ্টার অভিযান সত্ত্বেও সামরিক বাহিনী কোনো ড্রোন গুলি করে ভূপাতিত করতে ব্যর্থ হয়। এর ফলে ব্যাপক সমালোচনা হয় এবং দেশের প্রতিরক্ষামন্ত্রী ক্ষমা চান। দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট ইউন সুক-ইওল ঘটনাটিকে ‘অসহনীয়’ বলেছেন। তিনি আরও বলেন, দক্ষিণ কোরিয়াকে এমনটা নিশ্চিত করতে হবে যে ‘উস্কানি সব সময় কঠোর পরিণতির মুখোমুখি হয়, পিয়ংইয়ং তা যাতে বুঝতে পারে।’