তামানা জারিয়াবি ‘ছাড়া পেয়েছেন’

6

আফগানিস্তানে গত মাসে একদল বন্দুকধারীর হাতে ‘আটক’ হওয়া দেশটির নারী অধিকারকর্মী তামানা জারিয়াবি পারিয়ানি ছাড়া পেয়েছেন। বিষয়টি সম্বন্ধে অবগত দুটি সূত্র বিবিসিকে তাঁর মুক্তির খবর নিশ্চিত করেছে। তবে ছাড়া পেলেও পারিয়ানির স্বাস্থ্যের অবস্থা জানা যায়নি, বলেছে সূত্র দুটি। নারী অধিকার বিষয়ক এক বিক্ষোভে অংশ নেওয়ার পর তামানা জারিয়াবিকে তাঁর কাবুলের পারওয়ান-২ এলাকার অ্যাপার্টমেন্ট থেকে আটকের খবর মিলেছিল।তালেবান যোদ্ধারা তাঁকে নিয়ে গেছে বলে অভিযোগ উঠলেও গত বছরের অগাস্টে আফগানিস্তানের নিয়ন্ত্রণ নেওয়া গোষ্ঠীটি পরে পারিয়ানিকে আটকের কথা অস্বীকার করে।

আফগানিস্তান ফের তালেবানের নিয়ন্ত্রনে যাওয়ার পর থেকে দেশটিতে নারীদেরকে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে যেতে ও চাকরি করতে বাধা দেওয়ার অভিযোগ রয়েছে। আরও কয়েক ডজন নারীর সঙ্গে তামানা জারিয়াবি পারিয়ানিও এসবের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত নেন এবং বিক্ষোভ করেন। তার কয়েকদিন পর সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে দেওয়া এক পোস্টে তিনি একদল বন্দুকধারী তাঁকে গ্রেপ্তারে বাড়িতে এসে হাজির হয়েছে বলে জানান এবং সাহায্য চান।

তারপর থেকে তাঁর খোঁজ মিলছিল না। প্রতিবেশীরা পরে বিবিসিকে বলেন, একদল বন্দুকধারী পারিয়ানি ও তাঁর দুই বোনকে তুলে নিয়ে যাওয়ার পর থেকে তাদের অ্যাপার্টমেন্টটি খালি পড়ে আছে। তালেবান পরে পারিয়ানিকে গ্রেপ্তারের অভিযোগ অস্বীকার করে। তালেবান মুখপাত্র সুহাইল শাহীন ২০ জানুয়ারি বিবিসিকে বলেন, পারিয়ানিকে আটক করলে তালেবান তা স্বীকার কে নিতো। কোনো অভিযোগ থাকলে আদালতেই তার মীমাংসা হতো। বিদেশে রাজনৈতিক আশ্রয় পেতে পারিয়ানি মিথ্যা ভিডিও বানিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে তার গ্রেপ্তারের নাটক প্রচার করেছে কিনা, তা নিয়ে সন্দেহও প্রকাশ করেন তিনি।