ড্রামা ফেস্টিভ্যাল উৎসবের পর্দা নামছে

5

অপূর্ব-তটিনী অভিনীত ‘পথে হলো দেরী’ নাটকটি রোববার সন্ধ্যা ৬টায় সিএমভি’র ইউটিউব চ্যানেলে উন্মুক্ত হচ্ছে। এর মাধ্যমে পর্দা নামছে ‘ক্লোজআপ রোম্যান্টিক ড্রামা ফেস্টিভ্যাল’র। নাটকটি নির্মাণ করেছেন জাকারিয়া সৌখিন। এরমধ্যে টিজার ও ট্রেলার প্রকাশের মাধ্যমে নাটকটির প্রতি দর্শক আগ্রহ বেড়েছে। প্রযোজক এসকে সাহেদ আলী মনে করেন, ‘পথে হলো দেরী’ নাটকটির মাধ্যমে প্রথমবারের মতো আয়োজিত এ উৎসবের শেষটা হবে আরও চমকপ্রদ।

কারণ, টিজার ও ট্রেলারের সুবাদে এরইমধ্যে প্রশংসায় ভাসছেন অপূর্ব ও সংশ্লিষ্টরা। বেশিরভাগ দর্শকই মনে করছেন, বছর শেষে অপূর্বর বড় কামব্যাক হতে যাচ্ছে এই নাটকের মাধ্যমে। নাটকটিতে আরও অভিনয় করেছেন মনোজ প্রামাণিক, সালহা খানম নাদিয়া প্রমুখ। অপূর্ব বললেন, কক্সবাজার থেকে অনেক ভেতরে, টেকনাফের কাছাকাছি গভীর সমুদ্রে আমরা শুটিং করেছি। এখানে শুটিং করতে প্রতিকূল পরিবেশের সঙ্গে লড়াই করতে হয়েছে। আশা করছি নাটকটি দর্শকদের হৃদয়ে দাগ কেটে যাবে।

তবেই আমাদের শ্রম সার্থক হবে। এদিকে নাটকটির নির্মাতা ও নাট্যকার জাকারিয়া সৌখিন বলেন, আমি আসলে কাজটির মাধ্যমে বড় ক্যানভাস ধরার চেষ্টা করেছি। সেটা সম্ভব হয়েছে অপূর্ব, তটিনী, সিনেমাটোগ্রাফার নাজমুল হাসান, প্রযোজক পাপ্পু ভাইসহ ইউনিটের প্রত্যেকের সহযোগিতায়। পুরো ইউনিট মিলে অসম্ভব কষ্ট করে এই কাজটি করেছি। আশা করছি এটি দেখে ভালো লাগবে সবার। নির্মাতা জানান, গল্পের দাবিতে নাটকটির জন্য দুটি নতুন গান তৈরি করেছেন তিনি। লিখেছেন সোমেশ্বর অলি। প্রযোজক এসকে সাহেদ আলী পাপ্পু জানান, ক্লোজআপ রোম্যান্টিক ড্রামা ফেস্টিভ্যালের তৃতীয় ও শেষ কাজ হিসেবে ‘পথে হলো দেরী’ মুক্তি পাচ্ছে। এর আগে একই উৎসবের অংশ হিসেবে ৩০ নভেম্বর মিজানুর রহমান আরিয়ান নির্মিত ‘হদয়ে হৃদয়’ এবং ৭ ডিসেম্বর মুক্তি পেয়েছে প্রবীর রায় চৌধুরীর ‘ভালোবাসি তবুও’। দুটো নাটকই পেয়েছে দারুণ জনপ্রিয়তা।