টি২০ বিশ্বকাপে ভারতই সেরা : লারা

73

gourbangla logo

আসন্ন টোয়েন্টি২০ বিশ্বকাপের ফেবারিট হিসেবে স্বাগতিক ভারতকেই এগিয়ে রাখলেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের কিংবদন্তী ব্যাটসম্যান ব্রায়ান লারা। একইসাথে ছোট ফর্মেটের সর্বোচ্চ এই টুর্নামেন্টে নিজ দেশ ওয়েস্ট ইন্ডিজের সম্ভাবনাকেও আশার চোখে দেখছেন এই ব্যাটিং তারকা।
লারা মনে করেন নিজ দেশের সুবিধাকে কাজে লাগিয়ে ভারতই প্রথম থেকে এগিয়ে থাকবে। দুবাইয়ে অনুষ্ঠিত মাস্টার্স চ্যাম্পিয়নস লীগে মাঠের বাইরে বসে সাবেক এই ক্যারিবীয় টেস্ট অধিনায়ক বলেছেন, আমি মনে করি হোম কন্ডিশনে ভারত জয়ী হবে। তাদের খেলোয়াড়রা পিচ সম্পর্কে অবগত আছে। এই ধরনের ফর্মেটে বিশ্বের সেরা দলগুলোর বিপক্ষে সম্প্রতী তারা দারুন খেলছে। আমি অবশ্যই তাদেরকে ফেবারিট হিসেবে এগিয়ে রাখবো। কিন্তু একইসাথে আমি ওয়েস্ট ইন্ডিজের কথাও বলতে চাই। আশা করছি তারা সেরা সম্ভাব্য দল নিয়েই মাঠে নামবে। আর ক্যারিবীয়ানরা যদি নিজেদের প্রমান করতে পারে তবে বিশ্বের যেকোন দলই তাদেরকে নিয়ে দু:শ্চিন্তায় পড়বে।
২০১২ সালে টি২০ বিশ্বকাপের শিরোপা জিতেছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ড্যারেন সামির নেতৃত্বে এই দলে আরো আছেন ক্রিস গেইল, কিয়েরন পোলার্ড ও আন্দ্রে রাসেলের মত তারকারা যাদের বিশ্বের বড় বড় টি২০ লীগে খেলার অভিজ্ঞতা রয়েছে। লারা বিশ্বাস করেন খেলোয়াড়রা যদি নিজেদের ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে পারে তবে সত্যিকার অর্থেই কঠিন এক প্রতিপক্ষ হয়ে উঠতে পারবে। ৪৬ বছর বয়সী সাবেক এই অধিনায়ক বলেছেন, গেইল, ব্র্যাভো ও পোলার্ড যখন একসাথে মাঠে নামে সেখানে ভিন্ন কিছু রসায়ন থাকে। তারা দলবদ্ধ ভাবে যেদিন পারফর্ম করে সেদিন কোন কিছুইকেই সমস্যা মনে করে না। কিন্তু কিছু কিছু সময় আমরা জানি যে ওয়েস্ট ইন্ডিজে ধারাবাহিকতার দারুন অভাব রয়েছে। দলে বিশ্বের সেরা খেলোয়াড়রা থাকলেও প্রথম রাউন্ড থেকেই তাদের বিদায় ঘটতে পারে, অতীতে এর প্রমান রয়েছে।
টি২০ বিশ্বকাপে গ্রুপ-১ এ ওয়েস্ট ইন্ডিজের প্রতিপক্ষ ইংল্যান্ড, দক্ষিণ আফ্রিকা, শ্রীলংকা ও বাছাই পর্ব থেকে উঠে আসা একটি দল।
চলতি মাসের শেষে দুবাইয়ে প্রস্তুতিমূলক ক্যাম্প করার কথা রয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজের। এরপরপরই কলকাতায় অস্ট্রেলিয়া ও ভারতের বিপক্ষে দুটি আনুষ্ঠানিক ওয়ার্ম-আপ ম্যাচ খেলবে।