টিকটকে বছর সেরা সামিরা

7

শর্ট ভিডিও ও বিনোদন প্ল্যাটফর্ম হিসেবে তুমুল জনপ্রিয়তা পেয়েছে টিকটক। যদিও এটি নিয়ে সমালোচনা ও বিতর্কের অন্ত নেই। তবে সাধারণ মানুষ থেকে তারকা, সবাই টিকটকে মজে আছেন। ২০২২ সালে যেসব কনটেন্ট এই প্ল্যাটফর্মে আপলোড হয়েছে, সেগুলোর মধ্য থেকে যাচাই-বাছাই করে একটি বার্ষিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে প্রতিষ্ঠানটি। বাংলাদেশ থেকে চলতি বছর সবচেয়ে বেশি জনপ্রিয়তা পেয়েছে অভিনেত্রী সামিরা খান মাহির ভিডিও। তিনি তার শর্ট ভিডিওগুলোর মাধ্যমে দেখিয়েছেন, কীভাবে প্রাণবন্ত থাকা যায়। টিকটকের মতো প্ল্যাটফর্মের বার্ষিক প্রতিবেদনে শীর্ষস্থানে আসার বিষয়টি এক বন্ধুর কাছ থেকে জানতে পেরেছেন সামিরা খান মাহি। সে ঘটনা জানিয়েতিনি বলেন, “বিষয়টা আমার এক ফ্রেন্ডের মাধ্যমে জানতে পারি।

ও নিজেও এই তালিকায় আছে। তো আমাকে একটা স্ক্রিনশট পাঠানোর পর আমি দেখি, ওর নাম তিন নাম্বারে। কিন্তু তখনও আমি আমার ব্যাপারটা জানতাম না। পরে দেখি এক নাম্বারে লেখা ‘সামিরা’ নামটি। বুঝতে পারছিলাম না সেটা আমি কিনা। পরে চেক করে দেখি এটা তো আমি!” উচ্ছ্বসিত সামিরার ভাষ্য, ‘অবশ্যই এটা ভালো লাগার বিষয়। একটা প্ল্যাটফর্মে এত মানুষ সক্রিয় আছেন। সেখানে আমার ভিডিওগুলো বেশি দেখেছেন, এজন্য আনন্দিত। তাছাড়া টিকটক নিয়ে অনেকেই নেতিবাচক কথাবার্তা বলেন, তো সেই প্ল্যাটফর্মে যখন ভালো কিছু করে স্বীকৃতি পাই, সেটার আনন্দ তো একটু বেশিই বটে।’ টিকটকের সমালোচনার দিকটিও স্বীকার করেন সামিরা। তবে সেটার জন্য প্ল্যাটফর্ম নয়, বরং ওইসব ক্রিয়েটরদেরই দায়ী করলেন তিনি।

তার বক্তব্য, ‘আসলে টিকটক তো একটা প্ল্যাটফর্ম। এখানে ভালো-খারাপ দুই রকমের কনটেন্টই আছে। আগে বেশিরভাগ কনটেন্ট সস্তা-মানহীন হতো। তবে এখন কিন্তু অনেকেই ভালো কাজ করছেন। কেউ মেকআপ-স্কিন কেয়ার নিয়ে, কেউ নাচ নিয়ে, যে যার জায়গা থেকে এগিয়ে যাচ্ছেন। আমাদের শোবিজের অভিনেত্রীদেরও প্রায় সবার টিকটক অ্যাকাউন্ট আছে। সবাই ভিডিও বানাচ্ছেন। সুতরাং কিছু মানুষের জন্য সবাইকে ঢালাওভাবে মন্দ বলা ঠিক না।’ সামিরা জানান, আগে তিনি টিকটকে বেশি বেশি ভিডিও বানালেও এখন সেটা কমিয়ে এনেছেন। শুটিং ব্যস্ততার ফাঁকে সময় হয়ে ওঠে না।

এজন্য শুটিংয়ের শটের ফাঁকে সুযোগ পেলে ফোনের ক্যামেরাটি চালু করেন, তুলে ধরেন বিহাইন্ড দ্য সিনের কিছু অংশ। উল্লেখ্য, সামিরা খান মাহির টিকটক অ্যাকাউন্টে ৪৫ লাখের বেশি অনুসারী রয়েছে। অন্যদিকে তিনি ফলো করেন ৫৭৩ জনকে। অভিনেত্রীর ভিডিওগুলো এ পর্যন্ত ১৩২ দশমিক ৮ মিলিয়ন লাইক পেয়েছে। এদিকে সম্প্রতি সামিরা খান মাহি ওটিটির জন্য একটি কাজ করেছেন। বাসার জার্সিস পরিচালিত প্রজেক্টটির নাম ‘ওভার ট্রাম’। এটি শেষ করে বর্তমানে তিনি ব্যস্ত আছেন নাটকের শুটিংয়ে।