টাইগাররা কি বদলাতে পারবে ইতিহাস!

55

দক্ষিণ আফ্রিকা সফররত বাংলাদেশের চূড়ান্ত লড়াই শুরু হচ্ছে আগামীকাল বৃহষ্পতিবার। দুই ম্যাচ টেস্ট সিরিজের প্রথমটি পচেফস্ট্রুমে এদিন দুপুর ২টায় শুরু হবে। অতীত ইতিহাসে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে এখনো কোনো টেস্ট জয়ের রেকর্ড নেই বাংলাদেশের। তাই এবার টেস্ট জিততে পারলে বাংলাদেশের জন্য রচিত হবে নতুন ইতিহাস।
অতীত পরিসংখ্যান অনুযায়ী দিক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ১০টি টেস্ট ম্যাচ খেলেছে বাংলাদেশ। যার ৮টিতেই জিতেছে প্রোটিয়ারা। আর বাংলাদেশের মাটিতে ২০১৫ সালে শেষ দুটি টেস্ট বৃষ্টির কারণে ড্র হয়েছিল। দক্ষিণ আফ্রিকায বাংলাদেশ সবশেষ সফর করেছে ২০০৮ সালে। সেবার দুই ম্যাচ টেস্ট সিরিজে টাইগাররা হেরে যায় ২-০ ব্যবধানে। তবে লঙ্গার ভার্সনে বাংলাদেশের সাম্প্রতিক সাফল্য খারাপ নয়। গত এক বছরে বাংলাদেশ হোম সিরিজে একটি করে ইংল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়াকে টেস্টে হারিয়েছে। আর শ্রীলঙ্কাকে এক ম্যাচ হারিয়ে এসেছে তাদের ঘরের মাটিতে।
তাই প্রোটিয়াদের বিপক্ষে ম্যাচ জয়টা এখন আর অসম্ভব কিছু নয়। দক্ষিণ আফ্রিকা আমন্ত্রণমূলক একাদশের বিপক্ষে একটি প্রস্তুতি ম্যাচেও সেই প্রমাণ কিছুটা হলেও রেখেছে মুশফিক বাহিনী। যদিও তিনদিনের ওই ম্যাচ শেষ হয়েছে ড্র’তেই। প্রস্তুতি ম্যাচ শেষে টাইগার দলপতি মুশফিক ভাল খেলার আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন। তিনি বলেন, ‘শেষ কয়েক বছর সত্যি বাংলাদেশ ভাল খেলছে। আমাদের প্রথম লক্ষ্য হচ্ছে নিজেদের এই সামর্থ্যটা ধরে রাখা। দেশের মাটিতে যখন সবসময় আমরা আত্মবিশ্বাসী। তবে এই সফরটা আমাদের জন্য সহজ হবে না। তবুও এটাই আমাদের পরবর্তী ধাপ। আমরা আফ্রিকাতেও ভাল খেলতে চাই। নিজেদের প্রমাণে এটা বড় এক সুযোগ।’
ছেড়ে কথা বলতে নারাজ দক্ষিণ আফ্রিকাও। ম্যাচকে সামনে রেখে দলটির তরুণ প্রতিভাবান পেসার কাগিসো রাবাদা সংবাদ সম্মেলনে বলেন, ‘দলের সবাই আত্মবিশ্বাসী এবং জয়ের লক্ষ্যেই মাঠে নামতে চায়। একটা লম্বা বিরতির পর আমরা আবার ভাল ক্রিকেট খেলতে চাই। আমরা দ্রুতই সঠিক লক্ষ্যপানে পৌঁছতে চাই, এটাই আমাদের চ্যালেঞ্জ।’