টটেনহ্যামে পেরিসিচ

5

ফ্রি ট্রান্সফারের সুবিধাকে কাজে লাগিয়ে ইন্টার মিলান থেকে ক্রোয়েশিয়ান তারকা ইভান পেরিসিচকে দলে নিয়েছে প্রিমিয়ার লিগ জায়ান্ট টটেনহ্যাম হটস্পার। ক্লাব সূত্র এই তথ্য নিশ্চিত করেছে। ৩৩ বছর বয়সী পেরিসিচের সাথে প্রিমিয়ারের লিগের ক্লাবটির দুই বছরের চুক্তি হয়েছে। তার আগে ইন্টার মিলানের সাথে ক্রোয়েট এই অভিজ্ঞ ফরোয়ার্ডের চুক্তির মেয়াদ শেষ হয়ে গিয়েছিল। টটেনহ্যামের ওয়েবসাইটে এ সম্পর্কে পেরিসিচ বলেছেন, ‘নতুন পরিবারের সাথে যাত্রা শুরু করতে পেরে আমি খুবই আনন্দিত। টটেনহ্যাম এখন আমার বাড়ি হতে যাচ্ছে। স্পার্স কোচ এন্টোনিও কন্টে ও স্পোর্টিং ডাইরেক্টর ফ্যাবিও পারাটিসির কাছ থেকে যখন আমি চুক্তির প্রস্তাব পাই আমি তখন সাথে সাথে তাদেরকে ক্লাবের যোগ দেবার কথা নিশ্চিত করি। বেলজিয়ামে যখন আমি পেশাদার ফুটবল খেলা শুরু করি সেই ২০০৯ সাল থেকেই প্রিমিয়ার লিগে আসতে চেয়েছি। এতদিনে আমার সামনে সেই মুহূর্ত উপস্থিত হয়েছে। ইন্টারেও আমার কন্টের সাথে কাজ করার অভিজ্ঞা আছে। এমন একজন কোচের অধীনে খেলতে পারাটা সত্যিই সৌভাগ্যের। ১০ অথবা ১১ বছর পর ইন্টারের হয়ে আমরা লিগ শিরোপা জয় করেছিলাম।

সেটা আমাদের জন্য দারুন এক মৌসুম ছিল। আবারো তার সাথে যুক্ত হতে পেরে আমি দারুন খুশী। সে প্রতি মিনিট, প্রতি ঘন্টা, প্রতিদিন ফুটবলের সাথেই জীবন অতিবাহিত করে। আমার তো মনে হয় ঘুমের মধ্যেও সে ফুটবলকে নিয়েই থাকে। আমি টটেনহ্যামের শেষ দুই/তিনটি ম্যাচ দেখেছি। আর্সেনালকে পরাজিত করার পর টটেনহ্যাম চ্যাম্পিয়ন্স লিগে জায়গা করে নেয়। এটা আমার জন্য সত্যিই সুখবর, কারণ আমি সেরা জায়গায় ফুটবল খেলতে চাই।’ এর আগে পেরিসিচ সান সিরোতে ছয় বছরের চুক্তি শেষে সিরি-আ জায়ান্টদের বিদায় জানানোর ঘোষনা দেন।

এ সম্পর্কে তিনি ইনস্টগ্রামে লিখেন, ‘২৫৪ ম্যাচ, ৫৫ গোল, ৪৯টি এসিস্ট, ৩টি শিরোপা ও মাঠে অসাধারণ একটি জার্সি গায়ে অতিবাহিত করার পর আমার যাত্রা এখানেই শেষ হচ্ছে। প্রতিটি শেষেরই একটি নতুন শুরু থাকে। কিন্তু তারপরেও ইন্টারে কাটানো মুহূর্তগুলো ভবিষ্যতে চলার পথে পাথেয় হয়ে থাকবে। এটা আমি কখনই ভুলতে পারবোনা। এখানকার সতীর্থ, কোচিং স্টাফ, কর্মকর্তা বিশেষ করে সমর্থকদের কাছে আমার পুরো পরিবার কৃতজ্ঞ।’ ২০২০-২১ মৌসুমে ইন্টার মিলানের হয়ে সিরি-আ শিরোপা জয়ের পর পেরিসিচের আবারো কন্টের সাথে দেখা হতে যাচ্ছে।