ঝিনাইদহে যুবককে কুপিয়ে হত্যা, আটক ২

47

gourbangla logoঝিনাইদহ সদর উপজেলায় এক যুবককে কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। কোপে আহত হয়েছেন অপর এক যুবক। গত শুক্রবার রাত ১১টার দিকে উপজেলার পুড়াহটী ইউনিয়নের ইস্তেফাপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এ হত্যাকা-ের পরিকল্পনাকারী অভিযোগে দুই ব্যক্তিকে আটক করা হয়েছে। নিহত যুবকের নাম মহন মুন্সী (২৮)। তিনি ইস্তেফাপুর গ্রামের হাফিজুর রহমানের ছেলে। আহত হয়েছেন একই গ্রামের মুসলিম (১৮) নামের এক যুবক। তাঁকে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। নিহত মহনের চাচা ফিদু মুন্সী বলেন, গত শুক্রবার রাত ১১টার দিকে গ্রামের একটি চায়ের দোকান থেকে তিন বন্ধুর সঙ্গে বাড়ি ফিরছিলেন তাঁর ভাতিজা। এ সময় ওত পেতে থাকা এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসীরা তাঁদের ওপর হামলা চালায়। সন্ত্রাসীরা মহনকে ধাওয়া করে গ্রামের রাস্তার পাশে একটি মাঠে নিয়ে যায়। সেখানে তাঁর শরীরের বিভিন্ন স্থানে কুপিয়ে জখম করে সন্ত্রাসীরা। শরীর থেকে পা কেটে বিছিন্ন করে তাঁরা। গুরুতর আহত অবস্থায় মহনকে রাত পৌনে ১২টার দিকে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। ফিদু মুন্সী আরো বলেন, সন্ত্রাসীদের হামলায় মহনের বন্ধু মুসলিম আহত হন। মহনের অপর বন্ধু মারুফ পালিয়ে প্রাণে রক্ষা পান। এ হত্যার পরিকল্পনার অভিযোগে ইস্তেফাপুর হাসানুজ্জামান তিতু (৫০) এবং তাঁর শ্যালক জেলা শহরের মুরারীদহ এলাকার খোকনকে (২৮) আটক করেছে পুলিশ। ঝিনাইদহ সদর থানার ওসি হরেন্দ্রনাথ সরকার বলেন, পারিবারিক দ্বন্দ্বের জেরে গত শুক্রবার রাতে সদর উপজেলার পুড়াহটী ইউনিয়নের ইস্তেফাপুর গ্রামের মহন মুন্সী নামের এক যুবককে কুপিয়ে নির্মমভাবে হত্যা করা হয়েছে। এ ঘটনায় আরো এক যুবক আহত হয়েছেন। পরে জেলা শহরের মুরারীদহ গ্রামে অভিযান চালিয়ে হত্যাকা-ের প্রধান পরিকল্পনাকারী একাধিক হত্যা মামলার আসামি হাসানুজ্জামান তিতু এবং তাঁর শ্যালক খোকনকে আটক করা হয়েছে। পুড়াহটী ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম হিরণ বলেন, এলাকার একাধিক খুনের মামলার আসামি হাসানুজ্জামান তিতু। একইভাবে আরো অন্তত তিনটি খুনের ঘটনা ঘটিয়েছে। তিনি আরো বলেন, পূর্ব বিরোধের জের ধরে নিরীহ যুবক মহন মুন্সীকে হত্যা করেছে সে। সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, একমাত্র ছেলেকে হারিয়ে বিলাপ করছেন নিহত মহন মুন্সীর বাবা গ্রামের হাফিজুর রহমান। তিনি বলেন, জমির কারণে প্রতিপক্ষরা তাঁর একমাত্র ছেলেকে হত্যা করেছে।