জয় পেতেই কলকাতা যাচ্ছে আবাহনী

1

ঢাকায় শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতিতে ব্যস্ত আবাহনী লিমিটেড। নিজেদের মাঠে অনুশীলনটা জম্পেস করেই আজ শনিবার সকালে কলকাতার বিমান ধরতে যাচ্ছে আকাশি-নীল জার্সিধারীরা। ১৯ এপ্রিল এএফসি কাপের প্লে-অফ ম্যাচে ভারতের জায়ান্ট এটিকে মোহনবাগানের বিপক্ষে লড়তে হবে। সেই ম্যাচ খেলতে পুরো দলই মুখিয়ে আছে। বাংলাদেশের ক্লাবগুলোর মধ্যে এএফসি কাপে সফল দল আবাহনী। তিন বছর আগেও আঞ্চলিক সেমিফাইনালে খেলার অভিজ্ঞতা আছে মারিও লেমসের দলটির। সেই সুখস্মৃতি নিয়ে এবারও জোরেশোরে প্রস্তুতি নিয়ে কলকাতার মাঠ কাঁপাতে চাইছেন নাবীব নেওয়াজ জীবন-দানিয়েল কলিনদ্রেসরা। ৩৫ বছর বয়সী কোচ মারিও লেমসও দল নিয়ে বেশ আশাবাদী। বিশেষ করে, আগের চেয়ে বর্তমান দলটি বেশ শক্তিশালী। স্থানীয়দের পাশাপাশি বিদেশি সংগ্রহ অনেক ভালো। তাই পর্তুগিজ কোচ বলেছেন, ‘আমরা কলকাতার ম্যাচটিতে জেতার জন্যই যাবো। দলের সবাই সেভাবে প্রস্তুতি নিচ্ছে। আগের চেয়ে দল বেশ ব্যালেন্সড। আশা করছি, সমর্থকদের নিরাশ করবো না। ইতিবাচক ফল নিয়েই দেশে ফিরতে পারবো।’ তবে যুবভারতী স্টেডিয়ামে মোহনবাগানকে হারানো যে কঠিন, তা মানছেন আবাহনী কোচ, ‘মোহনবাগানের খেলা দেখেছি। এএফসি কাপে আগের ম্যাচে শ্রীলঙ্কার ব্লু স্টারের বিপক্ষে ওদের একচেটিয়া আধিপত্য ছিল। পজেশনাল ফুটবল খেলে তারা। কলকাতার দলটিতে হারানো কঠিন। তবে অসম্ভব কিছু নয়।’ আগামী মঙ্গলবার ম্যাচটি জিততে পারলে আবাহনী সরাসরি সুযোগ পাবে গ্রুপ পর্বে খেলার। সেখানে ‘ডি’ গ্রুপে আগে থেকে অপেক্ষা করে আছে বসুন্ধরা কিংস, গোকুলাম কেরালা এফসি এবং মাঝিয়া স্পোর্টস ও রিক্রিয়েশন ক্লাব। লেমস চাইছেন, মে মাসের এই গ্রুপ পর্বে জায়গা করে নিতে, ‘আমরা জেতার লক্ষ্য নিয়েই কলকাতা যাচ্ছি। জিততে পারলে আমাদের সামনে গ্রুপ পর্বে খেলার সুযোগ আসবে। এই সুযোগ আমরা হাতছাড়া করতে রাজি নই।’