জেলা শর্ট কোর্স ঐক্য পরিষদের মানববন্ধন

13

জাতীয় দক্ষতামান বেসিক ট্রেড কোর্স (৩০৬ ঘণ্টা)টি বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের অধীনে চলমান রাখার দাবিতে চাঁপাইনবাবগঞ্জে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। রবিবার শর্ট কোর্স ঐক্য পরিষদ, চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা শাখা এই মানববন্ধনের আয়োজন করে।
বেলা সাড়ে ১১টায় শহরের মুজিব চত্বরের সামনে অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে সভাপতিত্ব করেনÑ শর্ট কোর্স ঐক্য পরিষদের সভাপতি আফসার আলী। মানববন্ধনে জেলার বিভিন্ন উপজেলার শর্ট কোর্স ঐক্য পরিষদের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
মানববন্ধন শেষে জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি দেওয়া হয়।
মানববন্ধনে বক্তারা জানান, ২০০৩ সালে সরকার অনুমোদিত নট্রামসের আফলিয়েশন বন্ধ হলে বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের আফেলিয়েশন, নীতিমালা ও শিক্ষার্থীদের পাঠ্যক্রম অনুসারে স্ব-উদ্যোগে প্রতিষ্ঠিত প্রতিষ্ঠান তাদের ৩০৬ ঘণ্টা মেয়াদি প্রশিক্ষণ কোর্সের কার্যক্রম পরিচালিত হয়ে আসছে। সারদেশে প্রায় ৩ হাজার ৭৩৪টি প্রতিষ্ঠান থেকে প্রতিবছর প্রায় ৩ লাখ শিক্ষিত ও উচ্চ শিক্ষিত বেকার যুবক এসব প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে দক্ষতা অর্জন করছে। যা ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণে কার্যকর ভূমিকা রাখছে। কিন্তু গত ৮ সেপ্টেম্বর কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান বরাবর একটি চিঠিতে স্ব- উদ্যোগে পরিচালিত শর্ট কোর্স এসব প্রতিষ্ঠানকে জাতীয় দক্ষতা উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ ব্যতীত অন্য কোনো প্রতিষ্ঠান পরিচালনা করতে পারবে না বলে জানানো হয়। তাই স্ব-উদ্যোগে পরিচালিত এসব প্রতিষ্ঠান এভাবে অন্য কোনো নতুন সংস্থায় স্থানান্তর হলে প্রশিক্ষণ কার্যক্রম বন্ধের আশঙ্কাা রয়েছে। সেই সাথে এ প্রশিক্ষণ কার্যক্রমে জড়িত সারাদেশে প্রায় ৩ হাজার ৭০০ প্রতিষ্ঠানের ২৫ হাজার প্রশিক্ষক ও কর্মচারীর রুটি-রুজির পথ বন্ধ হয়ে যাবে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। তাই পূর্বের ন্যায় বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের অধীনে পরিচালনা করার জন্য দাবি জানান তারা।
মানববন্ধনে আরো উপস্থিত ছিলেনÑ শর্ট কোর্স ঐক্য পরিষদের জেলা সমন্বয়ক রফিকুল ইসলাম, সহকারী সমন্বয়ক আসাদুজ্জামান রাসেল, গোমস্তাপুর উপজেলা সমন্বয়ক বাইরুল ইসলাম, শিবগঞ্জ উপজেলা সমন্বয়ক আব্দুল মান্নান এবং ভোলাহাট উপজেলা সমন্বয়ক মাসুদ রানাসহ অন্যরা।