জেলায় ৪২৯৫০০ জনকে খাওয়ানো হবে কৃমিনাশক, জাতীয় কৃমি নিয়ন্ত্রণ সপ্তাহের উদ্বোধন

13

চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলায় শুরু হয়েছে জাতীয় কৃমি নিয়ন্ত্রণ সপ্তাহ। এবার জেলায় ৪ লাখ ২৯ হাজার ৫০০ জনকে খাওয়ানো হবে কৃমিনাশক ট্যাবলেট। রবিবার সকালে কালেক্টরেট গ্রিন ভিউ উচ্চ বিদ্যালয়ে এই কৃমি নিয়ন্ত্রণ সপ্তাহ-২০২৩ এর উদ্বোধন করেন স্থানীয় সরকার চাঁপাইনবাবগঞ্জের উপপরিচালক ও ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক দেবেন্দ্র নাথ উরাঁও।
সিভিল সার্জন ডা. এস এম মাহমুদুর রশিদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য দেন- জেলা শিক্ষা অফিসার আব্দুর রশিদ, কালেক্টরেট গ্রিন ভিউ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রোকসানা আহমদ, সিনিয়র হেলথ এডুকেশন অফিসার চৌধুরী আব্দুল্লাহ আস শামস তিলক, জুনিয়র স্বাস্থ্য শিক্ষা অফিসার মোসা. শামশুন নাহার।
এ ব্যাপারে দেবেন্দ্র নাথ উরাঁও জানান, কৃমি মানুষের শরীরের মধ্যে বাসা বাঁধলে মানুষ স্বাভাবিকভাবে বিভিন্ন জটিলতায় ভোগে। যার দরুন বদহজম, ডায়রিয়া ও শ্বাসকষ্ট সৃষ্টি হয়। এতে শিশুর শারীরিক ও মানসিক বৃদ্ধির ব্যাঘাত ঘটে। ফলে শিখন ক্ষমতা হ্রাস পায় ও শ্রেণিকক্ষে সক্রিয় থাকতে বাধাগ্রস্ত হয়। তিনি শিক্ষার্থীদের নির্ভয়ে কৃমিনাশক ট্যাবলেট খাওয়ার আহ্বান জানান।
এ ব্যাপারে সিভিল সার্জন ডা. এস এম মাহমুদুর রশিদ জানান, কৃমি মানুষের পেটে পরজীবী হিসেবে বাস করে এবং খাবারের পুষ্টিটুকু খেয়ে ফেলে, যার দরুণ শিশুরাই বেশিরভাগ ক্ষেত্রে পুষ্টিহীনতায় ভোগে। কৃমি মানুষের অন্ত্র থেকে রক্ত শোষণ করে। ফলে শিশুরা রক্তশূন্যতায় ভোগে। কৃমি নিয়ন্ত্রণ সপ্তাহে ৫-১৬ বছর বয়সী বিদ্যালয়গামী ও বিদ্যালয়-বহির্ভূত সকল শিশুকে কৃমিনাশক ওষুধ সেবন করানো হবে। ২২-৩১ জানুয়ারি জেলার ৪ লাখ ২৯ হাজার ৫০০ জনকে বৃমিনাশক খাওয়ানো হবে।