জেলায় শীতার্তদের পাশে বিভিন্ন সংগঠন ও প্রতিষ্ঠান বিভিন্ন স্থানে আলাদা আয়োজনে কম্বল বিতরণ

13

চাঁপাইনবাবগঞ্জে শীতার্ত অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে বিভিন্ন সংগঠন ও প্রতিষ্ঠান। সোমবার সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্য ফেরদৌসী ইসলাম জেসীর উদ্যোগে বাচ্চু ডাক্তার স্মৃতি পরিষদ, শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তর ও প্রকৌশলীদের সংগঠন আইইবি, পলশা মহেষপুর পানি ব্যববস্থাপনা সমবায় সমিতি লিমিটেড, চাঁপাইনবাবগঞ্জ চেম্বর অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি ও নাচোলে পৃথক পৃথক আয়োজনে বিভিন্ন স্থানে শীতবস্ত্র হিসেবে কম্বল বিতরণ করে।
বেলা ১২টার দিকে বালিয়াডাঙ্গায় ২শ জনের মধ্যে কম্বল বিতরণ করা হয়। মরহুম ডা. আ. আ. ম. মেসবাহুল বাচ্চু ডাক্তারের মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে বাচ্চু ডাক্তার স্মৃতি পরিষদ কম্বলগুলো বিতরণের আয়োজন করে। এসময় ড. সাইফুল ইসলাম, গোলাম মোর্তজা, আজিুজর রহমান, আব্দুল হাইসহ গণ্যমান্য ব্যক্তিরা উপস্থিত ছিলেন।
এর আগে বেলা ১১টার দিকে বালিয়াডাঙ্গা দারুস সুন্নাত মাদ্রাসা প্রাঙ্গনে মাদ্রাসার শিক্ষর্থীসহ এলাকার দুস্থ মানুষের মধ্যে শীতবস্ত্র বিতরণ করে শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তর, চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা কার্যালয়। প্রতিষ্ঠানটির প্রধান প্রকৌশলীর পক্ষ থেকে কম্বলগুলো বিতরণ করেন জেলা কার্যালয়ের নির্বাহী প্রকৌশলী রাকিবুল আহসান। এসময় মাদ্রাসাটির ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মো. মনিরুল ইসলাম, সহকারী অধ্যাপক আনোয়ারুল ইসলাম, প্রভাষক আবু বকর, বালিয়াডাঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান আব্দুল মান্নান ডলার, সহকারী প্রকৌশলী আসাদুজ্জামানসহ অন্যরা।
এসময় নির্বাহী প্রকৌশলী রাকিবুল আহসান বলেন-আমাদের প্রধান কাজ হচ্ছে ভবন নির্মাণ করা। কিন্তু আমরাও যে অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়াতে পারি সেটা প্রমান করেছেন আমাদের প্রধান প্রকৌশলী স্যার।
পরে একই জায়গায় ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন বাংলাদেশ, চাঁপাইনবাবগঞ্জ উপকেন্দ্রের পক্ষ থেকেও কম্বল বিতরণ করা হয়। এসময় সংগঠনটির জেলা উপকেন্দ্রের সম্পাদক প্রকৌশলী রাকিবুল আহসান, পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মোখলেসুর রহমান, নেসকো-১ এর নির্বাহী প্রকৌশলী আলিউল আজিমসহ অন্যরা।
অন্যদিকে দুপুর দেড়টায় পলশা মহেষপুর পানি ব্যবস্থাপনা সমবায় সমিতি লিমিটেডের উদ্যোগে এলাকার প্রায় ৫শ দরিদ্র অসহায় শীতার্ত মানুষের মধ্যে কম্বল বিতরণ করা হয়। প্রধান অতিথি হিসেবে কম্বল বিতরণের উদ্বোধন করেন সদর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) নাঈমা খাঁন। এসময় তিনি উপস্থিত মায়েদের উদ্দেশ্যে বলেন-আজ আপনারা যারা একটি কম্বলের জন্য এখানে বসে অপেক্ষা করছেন হয়ত আগামীতে এমন একটা দিন আসবে যখন আপনাদের মতো আপনাদের সন্তানদের সেটা করতে হবে না। সেজন্য আপনাদের সন্তানদের বিশেষ করে মায়েদের বলি- কোনো মেয়ের বাল্যবিয়ে দিবেন না। তাকে লেখাপড়া করার সুযোগ দিন। তাহলে দেখবেন সেও একদিন কম্বল নিতে নয়-দিতে আসবে, আজ আপনারা যে আসনে বসেছেন সে আসনে নয়-আমরা যে আসনে বসেছি সেই আসনে বসবে। এছাড়া মাদক সম্পর্কেও সচেতন থাকার আহ্বান জানানো হয়।
সমিটির সভাপতি ফজলে রাব্বি রেনুর সভাপতিত্বে আয়োজিত অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন, বালিয়াডাঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আতাউল হক কমল, রূপালী ব্যাংক লিমিটেড, নয়াগোলা শাখার ব্যবস্থাপক আসগার আলী, এনআরবিসি ব্যাংক, চাঁপাইনবাবগঞ্জ সাব ব্র্যাঞ্চের এফভিপি অ্যান্ড ইনচার্জ আইজ্যাক নিউটন, সমিতির সদস্য শামসুল হক। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন সমিতির সাধারণ সম্পাদক মেসবাহুল হক। রূপালী ব্যাংক, এনআরবিসি ও ইউসিবি ব্যাংকের সহযোগিতায় কম্বল বিতণ করা হয়।
এদিকে বিকেলে চাঁপাইনবাবগঞ্জ চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির উদ্যোগে সোমবার চেম্বার ভবনের তিন তলায় ১ হাজার দুস্থ ও শিতার্ত মানুষের মাঝে কম্বলসহ শীতবস্ত্র বিতরণ করা হয়। এসব সামগ্রী বিতরণ করেন চাঁপাইনবাবগঞ্জ চেম্বারের সভাপতি আব্দুল ওয়াহেদ। এসময় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন চেম্বারের সিনিয়র সহ-সভাপতি মো. মশিউল করিম বাবু, পরিচালক মো. মফিজ উদ্দীন, মো. আব্দুস সামাদ বকুল, রাইহানুল ইসলাম লুনা, মো. সেরাজুল ইসলাম, মো. নাজিবুর রহমানসহ অন্যরা।
অন্যদিকে চাঁপাইনবাবগঞ্জের নাচোলে দুস্থ অসহায় শিতার্তদের মাঝে তিনশ পিছ কম্বল বিতরণ করা হয়েছে। সোমবার বিকেলে সদর ইউনিয়নের ভাতসা উচ্চ বিদ্যালয় চত্বরে ভাতসা বৌ-ঝি সংগঠনের উদ্যোগে এসব কম্বল বিতরণ করা হয়।
সংগঠনটির সভানেত্রী সামসুন নাহারের সভাপতিত্বে কম্বল বিতরণী সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মশিউর রহমান বাবু।
বিশেষ অতিথি ছিলেন ভাতসা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক খালেদা বেগম, সাংবাদিক অ্যশোসিয়েশনের সভাপতি নুরুল ইসলাম বাবু, আবাস’র নির্বাহী পরিচালক খাইরুল ইসলাম, ডাসকো ফাউন্ডেশনের টেকনিক্যাল কোঅডিনেটর আবুল কালাম আজাদ ও উপজেলা আদিবাসী একাডেমীর সাবেক সভাপতি জৌতিন হেমব্রম।