জেলায় শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস পালিত

28

চাঁপাইনবাবগঞ্জে বৃহস্পতিবার যথাযোগ্য মর্যাদায় পালিত হয়েছে শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস। বেলা ১১টায় জেলার শিবগঞ্জ উপজেলার সোনামসজিদ স্থলবন্দর এলাকায় অবস্থিত গণকবরে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়। সেখানে সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।
এতে বক্তব্য দেন- জেলা প্রশাসক এ কে এম গালিভ খাঁন, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযেদ্ধা রুহুল আমিন, পুলিশ সুপার মো. ছাইদুল হাসানসহ অন্যরা।
বিকেলে শহরের শ্মশানঘাট এলাকার বধ্যভূমিতে নির্মিত স্মৃতিসৌধে পুষ্পমাল্য অর্পণ করে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানান স্থানীয় সরকার শাখার উপপরিচালক ও সরকারের উপসচিব দেবেন্দ্র নাথ উরাঁও।
পরে বিকেলে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে বঙ্গবন্ধু মঞ্চে জেলা প্রশাসন আয়োজিত আলোচনা অনুষ্ঠানে শহীদ বুদ্ধিজীবীদের সংজ্ঞা তুলে ধরে প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক বলেন, পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী চূড়ান্ত বিজয়ের ঠিক দুই দিন আগে রাজাকার আল-বদর ও আল-শামসের সহযোগিতায় শিক্ষক, চিকিৎসক, সংস্কৃতিকর্মী, প্রকৌশলীসহ জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তানদের রাতের অন্ধকারে বাড়ি থেকে ধরে নিয়ে নির্মমভাবে হত্যা করে মিরপুর বধ্যভূমিসহ বিভিন্ন স্থানে ফেলে রাখে। হানাদার বাহিনী বাঙালি জাতিকে মেধাশূন্য করতেই বুদ্ধিজীবীদের হত্যার পরিকল্পনা করে। পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীর সেই নির্মমতার কথা, মহান মুক্তিযুদ্ধের কথা নতুন প্রজন্মের মধ্যে ছড়িয়ে দিতে হবে। তাদেরকে দেশপ্রেমে উদ্বুদ্ধ করতে হবে।
অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক আহমেদ মাহবুব-উল-ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেনÑ পুলিশ সুপার মো. ছাইদুল হাসান, জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আফাজ উদ্দিন, বীর মুক্তিযোদ্ধা অ্যাডভোকেট আব্দুস সামাদ। সূচনা বক্তব্য দেন সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোছা. তাছমিনা খাতুন।
এক্সিম ব্যাংক কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় : যথাযোগ্য মর্যাদায় শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস পালন করেছে এক্সিম ব্যাংক কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়। শহীদ বুদ্ধিজীবী স্মৃতিসৌধে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়। পরে বিশ্ববিদ্যালয়ের অডিটোরিয়ামে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।
বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার মো. মনিরুল ইসলাম রিন্টুর সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. এ বি এম রাশেদুল হাসান। বিশেষ অতিথি ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত ট্রেজারার ড. মো. দেলোয়ার হোসেন।
প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন, ১৯৭১ সালের আজকের এই দিনে মহান মুক্তিযুদ্ধের বিজয়ের প্রাক্কালে পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী ও তাদের এ দেশীয় দোসররা জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তানদেরকে হত্যা করেছিল, কিন্তু তাদের স্বপ্নকে মুছে ফেলতে পারেনি। আমরা আমাদের কাজের মাধ্যমে শহীদদের বাঁচিয়ে রাখব। শহীদদের আত্মত্যাগকে বাঁচিয়ে রাখার উদ্দেশ্যে প্রতিটি শিক্ষার্থীকে জাতির এই শ্রেষ্ঠ সন্তানদের প্রতি শ্রদ্ধা ও দেশপ্রেম নিয়ে কাজ করার দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।
জেলা শিশু একাডেমি : বিনম্ন  শ্রদ্ধা ও যথাযোগ্য মর্যাদায় জেলা শিশু একাডেমি চাঁপাইনবাবগঞ্জে শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস পালন করেছে। বেলা ১১টায় প্রতিষ্ঠানটির হলরুমে আলোচনা সভা, পুরস্কার বিতরণ ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।
জেলা শিশু বিষয়ক কর্মকর্তা মো. শফিকুল আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বক্তব্য দেন- ইসলামিক ফাইন্ডেশন চাঁপাইনবাবগঞ্জের উপপরিচালক কৃষিবিদ মো. মাহমুদার রহমান, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব শাহ আলম, জেলা জাতীয় মহিলা সংস্থার চেয়ারম্যান ইয়াসমিন সুলতানা রুমা, সাহিত্যিক আজিজুর রহমান।
পরে শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস উপলক্ষে আয়োজিত বিভিন্ন প্রতিযোগিতার বিজয়ীদেরকে পুরস্কৃত করা হয়।
শেষে বঙ্গবন্ধু ও তাঁর পরিবারের অন্যান্য সদস্যসহ শহীদ বুদ্ধিজীবীদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করে মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয়।